পদত্যাগ করলেন ইসলামী ব্যাংকের চেয়ারম্যান আরাস্তু খান

গোলাম মওলা ১৮:২৭ , এপ্রিল ১৭ , ২০১৮

আরাস্তু খানইসলামী ব্যাংকের চেয়ারম্যান পদ থেকে সরে দাঁড়ালেন সরকারের সাবেক সচিব আরাস্তু খান। আজ মঙ্গলবার (১৭ এপ্রিল) তিনি ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে পদত্যাগপত্র জমা দিলে বোর্ড সভায় তা গ্রহণ করা হয়। আরাস্তু খানের জায়গায় চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ও ইসলামী ব্যাংকের স্বতন্ত্র পরিচালক ড. নাজমুল হাসানকে।
ইসলামী ব্যাংকের পরিচালক হেলাল আহমেদ চৌধুরী এ তথ্য নিশ্চিত করে বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আজ (মঙ্গলবার) ব্যাংকের বোর্ড সভায় আরাস্তু খান পদত্যাগ করলে তার পদত্যাগপত্র গ্রহণ করা হয়। এ সময় চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে স্বতন্ত্র পরিচালক অধ্যাপক ড. নাজমুল হাসানকে।’
আরাস্তু খানের পদত্যাগের পর স্বতন্ত্র পরিচালক অধ্যাপক ড. নাজমুল হাসানকে আরমাডা স্পিনিং মিলের পক্ষে নতুন করে পরিচালক নিয়োগ করা হয়েছে।
এর আগে, গত ৫ এপ্রিল ব্যাংকটির তিন ডিএমডিসহ শীর্ষ পাঁচ কর্মকর্তাকে অপসারণ করা হয়। যদিও তারা পদত্যাগ করেছেন বলে ব্যাংকটির পক্ষ থেকে বলা হয়। এই পাঁচ কর্মকর্তা হলেন—ব্যাংকের অতিরিক্ত ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এএমডি) মো. শামসুজ্জামান; উপব্যবস্থাপনা পরিচালক (ডিএমডি) মো. হাবিবুর রহমান ভূঁইয়া, আবদুস সাদেক ভূঁইয়া ও মো. মোহন মিয়া এবং সিনিয়র এক্সিকিউটিভ ভাইস প্রেসিডেন্ট আমিরুল ইসলাম।
ওই সময় ইসলামী ব্যাংক সূত্র জানায়, গত ২৯ মার্চ ব্যাংকের বোর্ড সভায় পাঁচ কর্মকর্তাকে অপসারণ নিয়ে প্রাথমিক আলোচনা হয়। পরে ৩ এপ্রিল মো. শামসুজ্জামানসহ দুজনকে পদত্যাগ করতে বলা হয়। ৫ এপ্রিল বাকি তিন ডিএমডিকে পদত্যাগ করতে বলা হলে তারা পদত্যাগ করেন। এছাড়া, গতকাল সোমবারও (১৬ এপ্রিল) ব্যাংকটির শীর্ষ তিন কর্মকর্তাকে অপসারণ করা হয়। এদিকে, ইসলামী ব্যাংক ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ও সরকারের আরেক সাবেক সচিব সৈয়দ মঞ্জুরুল ইসলামও আজ পদত্যাগ করেছেন বলে জানা গেছে।
ইসলামী ব্যাংক সূত্র বলছে, গত বছরের ৫ জানুয়ারি ব্যাংকটির পরিচালনা পর্ষদে পরিবর্তনের যে ধারা শুরু হয়েছিল, তারই ধারাবাহিকতায় ৫ এপ্রিল পদত্যাগের ঘটনা ঘটে। সেই একই ধারাবাহিকতাতেই এবার সরে দাঁড়াতে হলো আরাস্তু খানকে।
উল্লেখ্য, গত বছরের ৫ জানুয়ারি ইসলামী ব্যাংকের মালিকানা ও পরিচালনা পর্ষদে বড় ধরনের পরিবর্তন আসে। ওই সময় ব্যাংকের তৎকালীন পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান ইঞ্জিনিয়ার মোস্তফা আনোয়ার ও ব্যবস্থাপনা পরিচালক আব্দুল মান্নানকে অপসারণ করা হয়। এ সময় ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক পদে আব্দুল হামিদ মিয়া ও চেয়ারম্যান পদে সরকারের সাবেক সচিব আরাস্তু খানকে দায়িত্ব দেওয়া হয়। এর মধ্য দিয়ে ব্যাংকটিকে জামায়াতে ইসলামীর নিয়ন্ত্রণ থেকে মুক্ত করা হয়।
এদিকে, ব্যাংকের অন্য একটি সূত্রে জানা গেছে, ইসলামী ব্যাংকের পরিচালনা পর্ষদে নতুন পরিচালক হিসেবে যুক্ত হতে যাচ্ছেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাকাউন্টিং ব্ভিাগের শিক্ষক সেলিম উদ্দিন।

প্রসঙ্গত, ১৯৮৩ সালের ১৩ মার্চ বাংলাদেশ ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার প্রথম ইসলামী ব্যাংক হিসেবে যাত্রা শুরু করে ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ। দেশে শরিয়াহ ভিত্তিতে পরিচালিত ব্যাংকগুলোর মধ্যে এটিই সবচেয়ে বড় ব্যাংক।

/জিএম/টিআর/চেক-এমওএফ/

x