সিআইপি কার্ড পেলেন ৫৬ উদ্যোক্তা

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট ১৬:৪৮ , সেপ্টেম্বর ১৩ , ২০১৮

ছবি: অতিথিদের সঙ্গে সিআইপি কার্ড পাওয়া উদ্যোক্তারাজাতীয় আয় বৃদ্ধিসহ সামগ্রিক অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে ৫৬ উদ্যোক্তাকে বাণিজ্যিকভাবে গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি বা সিআইপি নির্বাচিত করেছে সরকার। বৃহস্পতিবার (১৩ সেপ্টেম্বর) রাজধানীর একটি হোটেলে আনুষ্ঠানিকভাবে নির্বাচিতদের হাতে সিআইপি কার্ড তুলে দেন শিল্পমন্ত্রী আমির হোসেন আমু।  

বাংলাদেশের বেসরকারি খাতে শিল্প স্থাপন, পণ্য, উৎপাদন, কর্মসংস্থান সৃষ্টি ও জাতীয় আয় বৃদ্ধিসহ দেশের অর্থনীতিতে অবদানের জন্য ‘সিআইপি (শিল্প) নির্বাচন নীতিমালা-২০১৪ অনুযায়ী, ২০১৬ সালের জন্য এই উদ্যোক্তাদের নির্বাচিত করা হয়।

সিআইপি কার্ড পাওয়া ব্যক্তিরা হলেন, এফবিসিসিআইয়ের সাবেক সভাপতি আবদুল মাতলুব আহমাদ, বাংলাদেশ চেম্বার অব ইন্ডাস্ট্রিজের (বিসিআই) সভাপতি এ কে আজাদ, বাংলাদেশ গার্মেন্টস ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিজিএমইএ) সভাপতি মো. সিদ্দিকুর রহমান এবং বাংলাদেশ নিটওয়্যার ম্যানুফ্যাকচারার্স অ্যান্ড এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিকেএমইএ) সভাপতি এ কে এম সেলিম ওসমান। ফরেন ইনভেস্টরস চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এফআইসিসিআই) প্রেসিডেন্ট রূপালী হক চৌধুরী, বাংলাদেশ উইমেন চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিজের সভাপতি সেলিমা আহমাদ, বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিলস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি তপন চৌধুরী এবং জাতীয় ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প সমিতি বাংলাদেশের (নাসিব) সভাপতি মির্জা নুরুল গণি শোভন।

এছাড়া বৃহৎ শিল্প (উৎপাদন) খাতে সিআইপি কার্ড পেয়েছেন, ২০ উদ্যোক্তা। এর বাইরে বৃহৎ শিল্প (সেবা) খাতে সিআইপি কার্ড পেয়েছেন পাঁচজন। মাঝারি শিল্প (উৎপাদন) খাতে সিআইপি কার্ড পেয়েছেন ১২ জন। মাঝারি শিল্প (সেবা) খাতে তিনজন সিআইপি কার্ড পান। ক্ষুদ্র শিল্প (উৎপাদন) খাতে সিআইপি কার্ড পান পাঁচজন। ক্ষুদ্র শিল্প (সেবা) খাতে, মাইক্রো শিল্প খাতে, কুটির শিল্প খাতে একজন করে সিআইপি কার্ড পেয়েছেন।

প্রসঙ্গত, কার্ড পাওয়ার পর থেকে এক বছরের জন্য শিল্পবিষয়ক নীতিনির্ধারণী কোনও কমিটিতে সিআইপিদের সদস্য হিসেবে অন্তর্ভুক্ত করতে পারবে সরকার। এর বাইরে সিআইপি কার্ডধারীরা ব্যবসা সংক্রান্ত ভ্রমণের সময় বিমান, রেল, সড়ক ও জলপথে সরকারি যানবাহনে আসন সংরক্ষণে অগ্রাধিকার পাবেন। সহজে ভিসা পাওয়ার জন্য তাদের অনুকূলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সংশ্লিষ্ট দূতাবাসকে ‘লেটার অব ইন্ট্রোডাকশন’ দেবে। এছাড়াও তারা বিমানবন্দরে ভিআইপি লাউঞ্জ-২ ব্যবহারের সুবিধা ও সচিবালয়ে প্রবেশের পাস পাবেন।

কার্ড প্রদান অনুষ্ঠানে এফবিসিসিআই সভাপতি মো. শফিউল ইসলাম মহিউদ্দিন বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। শিল্প মন্ত্রণালয়ের ভারপ্রাপ্ত সচিব মো. আবদুল হালিম এতে সভাপতিত্ব করেন।

 

/জিএম/টিটি/

x