সুন্দরবনের আয়তন বেড়েছে: বিদ্যুৎ সচিব

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট ২১:২৪ , জুলাই ১০ , ২০১৯

৫
বিদ্যুৎকেন্দ্র বা শিল্প কলকারখানার কারণে সুন্দরবনের কোনও ক্ষতি হচ্ছে না বলে দাবি করেছেন বিদ্যুৎ সচিব আহমদ কায়কাউস। তিবি বলেন,  ‘গত কয়েক বছরে সুন্দরবনের আয়তন আরও বেড়েছে। আরও সমৃদ্ধ হয়েছে। ৫৪ হাজার ১৪০ হেক্টর ম্যানগ্রোভ, নন ম্যানগ্রোভ ও পানির বৈচিত্র্য বেড়েছে।’ বুধবার (১০ জুলাই) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে সুন্দরবন নিয়ে জাতিসংঘের বিজ্ঞান, শিক্ষা ও ঐতিহ্যবিষয়ক সংস্থা ইউনেস্কোর প্রতিবেদন নিয়ে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে তিনি এই তথ্য জানান।

এরআগে, গত ৪ জুলাই আজারবাইজানের বাকুতে অনুষ্ঠিত ইউনেস্কোর ওয়ার্ল্ড হেরিটেজ কমিটির ৪৩তম সভায় অনুষ্ঠিত হয়। সভায় বিশ্ব ঐতিহ্য কমিটি সুন্দরবনকে বিপন্ন বিশ্ব ঐতিহ্যের তালিকায় অন্তর্ভুক্ত না করার সিদ্ধান্ত নেয়। এতে ১৫টি দেশ বাংলাদেশকে সমর্থন করে।

ওই সভায় বাংলাদেশের ১৬ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল অংশ নেয়। এরমধ্যে পরিবেশ, পানি, বিদ্যুৎ, পরিবহনসহ সংশ্লিষ্ট সব খাতের বিশেষজ্ঞরা ছিলেন।

সম্মেলন থেকে ফিরে এই সংবাদ সম্মেলনের আহ্বান করা হয়। বিদ্যুৎ সচিব ছাড়া এ সময় প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি বিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক ই ইলাহী চৌধুরী, পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব কবির বিন আনোয়ার, পাওয়ার সেলের মহাপরিচালক মোহম্মদ হোসেইন, পরিবেশ অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক সুলতান আহমেদ উপস্থিত ছিলেন।

বিদ্যুৎ সচিব জানান, ১৯৯৬ সালে ছিল চার লাখ ৩৬ হাজার ৬১৭ হেক্টর। এরমধ্যে ওয়াটার বডিস ছিল  ৫৯ দশমিক ৫৮ ভাগ, ম্যানগ্রোভ ছিল ২৩.২৪, নন ম্যানগ্রোভ ছিল ১৩.৩০ ভাগ। ২০১৫ সালের হিসাব অনুযায়ী তা বেড়ে হয়েছে ৪ লাখ ৯৪ হাজার ৭৫৭ হেক্টর। এরমধ্যে ওয়াটার বডিস ৫২ দশমিক ৪৬, ম্যানগ্রোভ ২৬ দশমিক ৩৪ এবং নন ম্যানগ্রোভ ১৫ দশমিক ৪ ভাগ হয়েছে।

 

/এসএনএস/এমএনএইচ/

x