দ্বিতীয় মেয়াদে রাবি’র ভিসি আব্দুস সোবহান

রাবি প্রতিনিধি ১৮:১৩ , মে ০৭ , ২০১৭

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি প্রফেসর আব্দুস সোবহানপ্রায় দুই মাস শূন্য থাকার পর পর অবশেষে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) ভাইস-চ্যান্সেলর (ভিসি) নিয়োগ দিয়েছে সরকার। বিশ্ববিদ্যালয়ের অ্যাপ্লাইড ফিজিক্স অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রফেসর ড. এম আব্দুস সোবহানকে দ্বিতীয় মেয়াদে চার বছরের জন্য নিয়োগ দেওয়া হয়েছে। রবিবার (৭ মে) শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগ থেকে এ সংক্রান্ত্র প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়।
শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের সহকারী সচিব (সরকারি বিশ্ববিদ্যালয়) আবদুস সাত্তার মিয়া স্বাক্ষরিত প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, ১৯৭৩ সালের রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় আইনের ১১ (২) ধারা অনুযায়ী অ্যাপ্লাইড ফিজিক্স অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রফেসর ড. এম আব্দুস সোবহানকে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস-চ্যান্সেলর পদে নিয়োগ প্রদানে রাষ্ট্রপতি সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন।
নিয়োগের শর্তে বলা হয়েছে, ভাইস-চ্যান্সেলর হিসেবে তার নিয়োগের মেয়াদ হবে চার বছর। ভাইস-চ্যান্সেলর পদে তিনি বর্তমান পদের সমপরিমাণ বেতন-ভাতা পাবেন। বিধি অনুযায়ী পদ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য সুযোগ সুবিধা ভোগ করবেন। এ আদেশ তার যোগদানের তারিখ থেকে কার্যকর হবে।

এর আগে ২০০৯ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি থেকে ২০১৩ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত প্রফেসর ড. আব্দুস সোবহান ভিসি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ও প্রো-ভিসি’র মেয়াদ শেষ হয় গত ২০ মার্চ। ওই দিন থেকেই পদ দু’টি শূন্য থাকে। বিশ্ববিদ্যালয়টিতে এর আগেও দুই দফা এ দু’টি পদ শূন্য ছিল ২০০৯ সালের ১০ জানুয়ারি থেকে ২৩ জানুয়ারি এবং ২০১৩ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি থেকে ২০ মার্চ পর্যন্ত।

দায়িত্ব বুঝে নিচ্ছেন প্রফেসর আব্দুস সোবহানমন্ত্রণালয় ও রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় সূত্রে জানা গেছে, ২০১৩ সালের ২০ মার্চ চার বছরের জন্য ভিসি পদে অধ্যাপক মুহাম্মদ মিজান উদ্দিন ও প্রো-ভিসি পদে অধ্যাপক চৌধুরী সারওয়ার জাহান নিয়োগ পান। গত ২০ মার্চ নিজ নিজ পদের মেয়াদ শেষে তারা দু’জন নিজ নিজ বিভাগে যোগদান করেন।

এরপর ওই শূন্য পদ পূরণে রেজিস্ট্রার দফতর থেকে ভিসি ও প্রো-ভিসি নিয়োগে পরবর্তী ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে চিঠি দেওয়া হয়। এসময় শিক্ষার্থীসহ বিভিন্ন মহল থেকে ভিসি ও প্রো-ভিসি নিয়োগের দাবি তুলে বলা হয়, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় অভিভাবকশূন্য রয়েছে। শিগগিরই যেন নিয়োগ দেওয়া হয়। এদিকে, ভিসি হিসেবে নিয়োগ পাওয়ার পর বিকাল পৌনে ছয়টার দিকে প্রফেসর আব্দুস সোবহান তার দায়িত্ব গ্রহণ করেন। দায়িত্ব নেওয়ার পর তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় প্রফেসর আব্দুস সোবহান বলেন, ‘ভিসি হিসেবে নিয়োগ দেওয়ায় মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও মহামান্য রাষ্ট্রপতিকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই।’ 

বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বার্থ রক্ষায় সংশ্লিষ্ট সবার সহযোগিতা কামনা করে ভিসি বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়কে এগিয়ে নেওয়ার চেষ্টা চেষ্টা থাকবে সব সময়।’

/এসএমএ/

x