রাজশাহী মেট্রোপলিটনে চার থানা ভেঙে ১২টি হচ্ছে

রাজশাহী প্রতিনিধি ২০:৫১ , ফেব্রুয়ারি ১৪ , ২০১৮

রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের প্রেস ব্রিফিংরাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশের (আরএমপি) চারটি থানা ভেঙে ১২টি থানা হচ্ছে। নতুন আট থানার কার্যক্রম আগামী ১ মার্চে শুরু হবে। ২২ ফেব্রুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নতুন থানাগুলোর উদ্বোধন করবেন। বুধবার (১৪ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে আরএমপির সদর দফতরে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান পুলিশ কমিশনার মাহাবুবুর রহমান।

তিনি বলেন, চাহিদার কথা বিবেচনা করে চার থানা ভেঙে ১২টি থানা করা হচ্ছে। আরএমপির চার থানার বর্তমান আয়তন ২০৩ বর্গকিলোমিটার। নতুন করে চন্দ্রিমা, কাশিয়াডাঙ্গা, কর্ণহার, দামকুড়া, কাটাখালী, বেলপুকুর, এয়ারপোর্ট ও পবা থানার কার্যক্রম শুরু হলে আরএমপির আয়তন হবে ৯০০ বর্গকিলোমিটার। প্রাথমিক অবস্থায় ভাড়া ভবনে নতুন থানাগুলোর কার্যক্রম চালানো হবে। থানার সংখ্যা বাড়ার কারণে জনগণের কাছাকাছি গিয়ে সেবা নিশ্চিত এবং অপরাধ দমন সহজ হবে। আরএমপির বর্তমান জনবল দিয়েই সব থানার কার্যক্রম চালানো হবে।

সংবাদ সম্মেলনে আরও জানানো হয়, দুই বছর ধরে নতুন থানা গঠনের কাজ চলছিল। গত ৭ ফেব্রুয়ারি প্রজ্ঞাপন জারি করা হয়। এখন আরএমপিকে চারটি ডিভিশনে ভাগ করা হবে। এগুলো হলো,  ডিসি (বোয়ালিয়া), ডিসি (কাশিয়াডাঙ্গা), ডিসি (মতিহার), ডিসি (শাহ মখদুম)। আর রাজপাড়া জোনের মধ্যে থাকবে বোয়ালিয়া, চন্দ্রিমা ও রাজপাড়া থানা। কাশিয়াডাঙ্গা ডিভিশনে থাকবে কাশিয়াডাঙ্গা, কর্ণহার, দামকুড়া থানা। মতিহার জোনে থাকবে মতিহার, কাটাখালী ও বেলপুকুর থানা। ডিসি শাহ মখদুমের অধীনে থাকবে শাহ মখদুম, এয়ারপোর্ট ও পবা থানা।

পুলিশ কমিশনার মাহাবুবুর রহমান বলেন, ‘একসঙ্গে এত বেশিসংখ্যক থানা বাড়ানো পুলিশের ইতিহাসে একটি যুগান্তকারী ব্যাপার। আশা করছি, আমাদের জনবল দিয়ে মানুষের সেবা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে।’

সংবাদ সম্মেলনে অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার সুজায়েত ইসলাম, উপপুলিশ কমিশনার আমীর জাফর, সাজিদ হোসেন, মুখাপাত্র ইফতে খায়ের আলমসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

 

/এএম/

x