বরিশালে সাংবাদিককে নির্যাতনের ঘটনায় পুলিশের তদন্ত কমিটি

বরিশাল প্রতিনিধি ১৮:২০ , মার্চ ১৪ , ২০১৮

বরিশালে ডিবি পুলিশের নির্যাতনের শিকার সাংবাদিক সুমন (ছবি- সংগৃহীত)বরিশালে বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল ডিবিসি নিউজের ক্যামেরাপারসন সুমন হাসানকে নির্যাতনের ঘটনায় তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। বুধবার (১৪ মার্চ) বরিশাল মেট্রোপলিটান পুলিশ কমিশনার এসএম রুহুল আমিন এডিসি রুনা লায়লাকে প্রধান করে এ কমিটি গঠন করেন। কমিটিকে বৃহস্পতিবারের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

সাংবাদিক সুমনকে ডিবি পুলিশের  নির্যাতনের ঘটনায় দুঃখ প্রকাশ করে পুলিশ কমিশনার এসএম রুহুল আমিন বলেন, ‘তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্তে কার কতটুকু দোষ এটা দেখে অপরাধ অনুযায়ী বিভাগীয় শাস্তির ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বিশাল পুলিশ বাহিনীর মধ্যে কিছু খারাপ থাকতে পারে। আমরা চাইবো তারা সংশোধন হবে। তারা থাকবে, নয়তো চলে যাবে।’

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার (১৩ মার্চ) দুপুরে বরিশাল মহানগরীর দক্ষিণ চকবাজারের পুরনো বিউটি হলের সামনে ডিবি পুলিশ একটি বাসায় মাদকের অভিযান চালালে ডিবিসি নিউজের সাংবাদিক সুমন ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন। অভিযানের বিষয়ে পুলিশ সদস্যদের সঙ্গে কথা বলতে চাইলে  তারবাকবিতণ্ডা হয়। একপর্যায়ে আট পুলিশ সদস্য মিলে সুমনের ওপর চড়াও হন। এ সময় তারা সুমনকে বেধড়ক মারধর করলে তিনি অজ্ঞান হয়ে যান। পরবর্তীতে ডিবি কার্যালয়ে নেওয়ার পর সেখানে সুমনের জ্ঞান ফিরে আসলে, পুনরায় তার ওপরে মধ্যযুগীয় কায়দায় মারধর করা হয়।

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সুমান হাসান জানান, পরিচয়পত্র দেখানোর পরও পুলিশ তার সঙ্গে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়ে। একপর্যায়ে ডিবি পুলিশের এসআই  আবুল বাশারসহ টিমের সদস্যরা তার ওপর চড়াও হয়। কিছু বুঝে ওঠার আগেই তারা বেধড়ক মারধর শুরু করে এবং গায়ের জামা-কাপড় ছিঁড়ে ফেলে। একপর্যায়ে তারা লাঠি দিয়ে মারধর করে এবং  হ্যান্ডকাপ পরিয়ে টানতে টানতে তাদের গাড়িতে তুলে নিয়ে যায়। তারপর ডিবি অফিসে নিয়ে আবারও মারধর করে। খবর পেয়ে সংবাদকর্মীরা তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।

এদিকে, এ ঘটনায় বুধবার (১৪ মার্চ) দুপুরে নগরীর অশ্বিনী কুমার হলের সামনে ফটো সাংবাদিক ঐক্য পরিষদ ও বরিশাল ইলেকট্রনিক মিডিয়া জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের ব্যানারে মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।

মানববন্ধনে ফটো সাংবাদিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি দিপু তালুকদারের সভাপতিত্বে বক্তব্য রাখেন বরিশাল মেট্রোপলিটন প্রেসক্লাবের সভাপতি কাজী আবুল কালাম আজাদ, বরিশাল টেলিভিশন মিডিয়া অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি হুমায়ুন কবির, বরিশাল রিপোর্টার্স ইউনিটির সভাপতি নজরুল বিশ্বাস, বরিশাল প্রেসক্লাবের সদস্য ও মুক্তিযোদ্ধা নুরুল আলম ফরিদ, বাংলাদেশ প্রতিদিনের ব্যুরো প্রধান রাহাত খান, সাংবাদিক নেতা এম. জহির, বেলায়েত বাবলু প্রমুখ।

বক্তারা ক্যামেরাপারসন সুমন হাসানের ওপর ডিবি পুলিশের অমানবিক নির্যাতনের বিচার, দোষীদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় মামলা দায়ের ও চাকরিচ্যুত করার দাবি জানান।
আরও পড়ুন:

এই নির্মমতার জবাব কী

/বিএল/

x