‘প্রধানমন্ত্রীর জনসভায় নেতাকর্মীর নামে স্লোগান দিবেন না’

নিজস্ব প্রতিবেদক, চট্টগ্রাম ১৮:৪৮ , মার্চ ১৪ , ২০১৮

চট্টগ্রাম

আগামী ২১ মার্চ প্রধানমন্ত্রীর জনসভায় নেতাকর্মীদের নামে স্লোগান না দিয়ে, প্রধানমন্ত্রীর নামে স্লোগান দেওয়ার নির্দেশনা দিয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতারা। তারা বলেছেন, ২১ মার্চ আপনারা ঐক্যের শক্তি প্রদর্শন করবেন। কোনও নেতাকর্মীর নামে স্লোগান দিয়ে জনসভায় বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করবেন না। স্লোগান দিবেন শুধুমাত্র প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নামে।

বুধবার (১৪ মার্চ) দুপুরে পটিয়া উপজেলার ইন্দ্রপুল হল টুডে কমিউনিটি সেন্টারে উপজেলা আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের প্রতিনিধি সভায় আওয়ামী লীগ নেতারা এসব কথা বলেন। পটিয়া আদর্শ উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া ২১ মার্চের জনসভার প্রস্তুতি নিয়ে এ সভার আয়োজন করে উপজেলা আওয়ামী লীগ। অনুষ্ঠানে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম হানিফ প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন।

এসময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সজীব ওয়াজেদ জয় ছাড়া অন্য কোনও নেতার ছবি জনসভার প্রচারণায় ব্যানার, পোস্টার ও ফেস্টুনে না ছাপানোরও পরামর্শ দেন নেতারা।

আওয়ামী লীগ নেতারা বলেন, ২১ মার্চ পটিয়ার সমাবেশ হবে বাংলাদেশের ইতিহাস। শৃঙ্খলায়ও ইতিহাস সৃষ্টি করতে হবে। জনসভা সফল হলে, সুনাম হবে পটিয়ার, তাই আমাদের কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে কাজ করতে হবে।

এসময় মাহবুবুল আলম হানিফ বলেন, ‘সৎ লোকের শাসন চাইলে শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে হবে। আওয়ামী লীগ আবার ক্ষমতায় আসলে বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা হবে। বাংলাদেশ দারিদ্র্য, ক্ষুধামুক্ত স্বনির্ভর দেশে পরিণত হবে।’ এসময় তিনি ২১ মার্চের জনসভা জনসমুদ্রে পরিণত হবে বলে মন্তব্য করেন।

পরে তিনি জনসভাস্থল পটিয়া আর্দশ উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠ ঘুরে দেখেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আ ক ম শামসুজ্জামান চৌধুরীর সভাপতিত্বে সভায় প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক, ডাকসুর সাবেক ভিপি একেএম এনামুল হক শামীম। উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, পৌর মেয়র অধ্যাপক হারুনুর রশীদের সঞ্চালনায় এতে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন পটিয়ার সংসদ সদস্য শামসুল হক চৌধুরী, আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় উপ দফতর  সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, প্রধানমন্ত্রীর সহকারী একান্ত সচিব সাইফুজ্জামান চৌধুরী শেখর, দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোছলেম উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক মফিজুর রহমান, সাংগঠনিক সম্পাদক প্রদীপ দাশ, দক্ষিণ জেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শামীমা হারুণ লুবনা, কেন্দ্রীয় যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বদিউল আলম বদি, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি মাইনুদ্দিন হাসান চৌধুরী, সাবেক সাধারণ সম্পাদক মাহফুজুল হায়দার রোটন প্রমুখ।

আরও পড়ুন: বিএনপি নয় বছরে ৯ মিনিটও আন্দোলন করতে পারেনি: সেতুমন্ত্রী 

/জেবি/

x