ফুলবাড়ীতে মাদক ব্যবসায়ীদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ, দুই পুলিশসহ আহত ৭

দিনাজপুর প্রতিনিধি ২১:০৫ , মার্চ ১৪ , ২০১৮

পুলিশের হাতে আটক মাদক ব্যাবসায়ীসহ তার সহযোগীরা

দিনাজপুরের ফুলবাড়ীতে মাদক বিরোধী অভিযান চালাতে গিয়ে পুলিশের সঙ্গে মাদক ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষে দুই পুলিশসহ সাত জন আহত হয়েছে। এসময় এলাকাবাসীর সহযোগিতায় ২৫ বোতল ফেন্সিডিলসহ ৫ জনকে আটক করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে ফুলবাড়ী উপজেলার শিবনগর ইউনিয়নের পাঠকপাড়া গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

এলাকাবাসী জানায়, ফুলবাড়ী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শাহ আলমের নেতৃত্বে পুলিশের একটি দল মঙ্গলবার ফুলবাড়ী উপজেলার পাঠকপাড়া গ্রামে মাদক বিরোধী অভিযান চালাতে যায়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে মাদক ব্যবসায়ীরা তাদের সহযোগীদের সাহায্যে লাঠিসোঠা ও দেশীয় অস্ত্র নিয়ে পুলিশের হামলা করে। এ সময় পুলিশের সঙ্গে মাদক ব্যবসায়ীদের হাতাহাতি ও ধ্বস্তাধ্বস্তি শুরু হয়। মাদক ব্যবসায়ীদের তুলনায় পুলিশের সংখ্যা কম ছিল। পরে অবস্থা বেগতিক দেখে পুলিশ সদস্যরা চিৎকার করে। চিৎকার শুনে এলাকাবাসী ছুটে এসে পুলিশকে সহযোগিতা করে। এসময় মাদক ব্যবসায়ীরা পুলিশসহ এলাকাবাসীর ওপর হামলা চালায়। এক পর্যায়ে পুলিশ ২৫ বোতল ফেন্সিডিলসহ মাদক ব্যবসায়ী বিপ্লিস দাসকে (৩২) আটক করে। আটক বিপ্লিস দাস ফুলবাড়ী উপজেলার পাঠকপাড়া গ্রামের তরুনী দাসের ছেলে। এসময় মাদক ব্যবসায়ীদের পক্ষ নিয়ে পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগে ৪ জনকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হচ্ছে, বিপ্লিস দাসের ভাই বিলাশ দাস (৩০) ও বিপন দাস (২৫), একই গ্রামের লক্ষ্মীকান্ত দাসের ছেলে সনাতন চন্দ্র দাস (৩০) ও তপন চন্দ্র দাস (২৪)।

এদিকে পুলিশের সঙ্গে মাদক ব্যবসায়ীদের সংঘর্ষে ফুলবাড়ী থানার পিক-আপ ভ্যান চালক সাহাজুল ইসলাম (৩৫), কনস্টেবল ফরহাদ (৩৩) ও মাদক ব্যবসায়ীদের সহযোগী বিলাশ দাস (৩০) আহত হয়। এছাড়াও পুলিশকে সহযোগিতা করতে এসে মাদক ব্যবসায়ীদের হামলায় আহত হন চার জন গ্রামবাসী। তারা হলেন, পাঠক পাড়া গ্রামের মৃত নিরোধ চন্দ্র সরকারের ছেলে সাবেক ইউপি সদস্য প্রদীপ কুমার সরকার (৪৫), একই এলাকার শ্রীমান্ত সরকারের ছেলে অঞ্জন কুমার সরকার (২৪), পানেশ্বরের ছেলে নান্টু (৪৮) ও অমল চক্রবর্তীর স্ত্রী মনিবালা চক্রবর্তী (৫৫)। আহতদের ফুলবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। 

এ ব্যাপারে ফুলবাড়ী থানার ওসি শেখ নাসিম হাবিব জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে মাদক ব্যবসায়ীদের আটক করতে গেলে পুলিশের সঙ্গে মাদক ব্যবসায়ীদের ধাক্কাধাক্কি হয়। এতে দুই পুলিশ সদস্যসহ সাত জন হয়েছে। আটক মাদক ব্যবসায়ী বিপ্লিস দাসের বিরুদ্ধে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ফুলবাড়ী থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। এছাড়াও সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অপরাধে আটক  পাঁচ জনসহ মোট ১০ জনকে আসামি করে আরও একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: বঙ্গবন্ধুর বাংলার মাটিতে ষড়যন্ত্র করে কোনও লাভ নেই: নাসিম

 

/জেবি/

x