সরাইলে দুই দল গ্রামবাসীর সংঘর্ষ, পুলিশসহ আহত শতাধিক

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি ১৫:৫৯ , জুন ১৪ , ২০১৮

সরাইলে দুই দল গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষ ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে দুই দল গ্রামবাসীর সংর্ঘষে পুলিশসহ অন্তত শতাধিক লোক আহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল ১১টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত টানা তিন ঘণ্টা এ সংঘর্ষ চলে। পরে সরাইল,বিজয়নগর এবং ব্রাহ্মণবাড়িয়া থেকে অতিরিক্তি পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আনে। সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মফিজুল উদ্দিন ভূইয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।
সরাইলে দুই দল গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষপুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বুধবার সন্ধ্যায় সরাইল উচালিয়াপাড়া বাজারে কলা কেনা নিয়ে তেরকান্দার ফজলু মেম্বারের লোকজনের সঙ্গে উচালিয়া পাড়ার সাঈদ মেম্বারের লোকজনের কথা কাটাকাটি হয়। এ নিয়ে বৃহস্পতিবার সকালে দুই পক্ষের লোজকন উচালিয়া পাড়া বাজারে আসলে তাদের মধ্যে হাতাহাতির ঘটনা ঘটে। পরে দুই দল গ্রামবাসী দেশীয় অস্ত্র-শস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। পরে কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে তা সরাইল সদর এবং নোঁয়াগাও এই দুই ইউনিয়নের মধ্যে ছড়িয়ে পরে। সংঘর্ষে টেটাবিদ্ধ  হয়ে ও ঢিলের আঘাতে উভয় পক্ষের অন্তত শতাধিক লোক আহত হয়। সংঘর্ষের খবর পেয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার ইকবাল হোসেনের নেতৃত্বে বিপুল সংখ্যক পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে কয়েকশ’ রাউন্ড শটগানের গুলি, সাউন্ড গ্র্যানেড এবং টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে।
সরাইলে দুই দল গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষব্রাহ্মণবাড়িয়ার অতিরিক্তি পুলিশ সুপার ইকবাল হোসেন এবং সরাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মফিজুল উদ্দিন ভূইয়া জানান, কলা কেনা নিয়ে দুইপক্ষের সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। ঘটনার খবরপেয়ে পুলিশ ঘটনা স্থলে পৌঁছে সংঘর্ষ নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘটনাস্থলে পুলিশি অভিযান চলছে। আহতদের সরাইল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া বিভিনন ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। এ ব্যপারে উভয় পক্ষের দুই মেম্বারের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেও তাদের সঙ্গে কথা বলা যায়নি।

/এসএসএ/

x