খুলনায় সুপেয় পানির সংকট কাটবে ডিসেম্বরে

খুলনা প্রতিনিধি ১১:১৯ , অক্টোবর ১২ , ২০১৮

সুপেয় পানির সংকটখুলনায় সুপেয় পানির তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। শহর থেকে গ্রাম সবখানেই রয়েছে সুপেয় পানির সংকট। এ সমস্যার সামাধানে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগ ৬টি প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। এছাড়া খুলনা নগরীর জন্য ওয়াশা প্রকল্পের কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। ফলে ডিসেম্বরে সুপেয় পানির সংকট সমাধান হবে বলে আশা করা হচ্ছে। আর উপজেলাগুলোয় সমস্যার সমাধান হবে জুলাইয়ে।

জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতর খুলনার পানি সরবরাহ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী জাহিদ পারভেজ বলেন, ‘খুলনা জেলায় নিরাপদ পানি সরবরাহে ২০০৯-১০ অর্থবছর থেকে এ পর্যন্ত বেশ কিছু প্রকল্পের কাজ শুরু হয়। যা বাস্তবায়িত হলে পানি সমস্যার সমাধান হবে। চাহিদা অনুযায়ী প্রকল্প বাস্তবায়ন করা কঠিন। তারপরও সরকারিভাবে সমস্যা সমাধানের প্রচেষ্টা অব্যহত রয়েছে।’

স্বাস্থ্যসম্মত সুপেয় পানি সংগ্রহ করছেন এলাকাবাসীখুলনা জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদফতর সূত্রে জানা গেছে, খুলনার ডুমুরিয়া, পাইকগাছা, রূপসা ও তেরখাদা উপজেলায় পানি সরবরাহে আর্সেনিক ঝুঁকি নিরসন প্রকল্পের আওতায় ৪৭৭টি গভীর নলকূপ, ১৭৯টি রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিং, ৯৩টি ভিএসএসটি/এসএসটি, ৯৩টি পিএসএফ নির্মাণ করা হবে। যা টেন্ডার প্রক্রিয়ায় রয়েছে।

এছাড়া খুলনার ৯টি উপজেলায় অগ্রাধিকারমূলক গ্রামীণ পানি সরবরাহ প্রকল্পের আওতায় ৩৪৩টি অগভীর নলকূপ, ৪৯৮টি গভীর নলকূপ, ৩৪৯টি রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিং স্থাপন করা হবে। গভীর নলকূপ স্থাপনের  কাজ ২৫ ভাগ সম্পন্ন হয়েছে।

সুপেয় পানির চাহিদা মেটাতে কাটা পুকুরপাশাপাশি কেবিএস (খুলনা, বাগেরহাট, সাতক্ষীরা) নিরাপদ পানি সরবরাহ প্রকল্পের আওতায় খুলনায় ১৫০০টি রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিং স্থাপন (৯৫ ভাগ সম্পন্ন), ২০০টি গভীর নলকূপ স্থাপন (৮০ ভাগ সম্পন্ন), ৩০টি পিএসএফ স্থাপন (টেন্ডার প্রক্রিয়াধীন), ১৫টি সোলার সিস্টেম পিএসএফ স্থাপন (টেন্ডার প্রক্রিয়াধীন), ৪৫টি পিএসএফ মেরামত (সমপন্ন), ৪টি পরীক্ষামূলক নলকূপ স্থাপন (সম্পন্ন), নিরাপত্তা দেওয়ালসহ ২টি পাম্প হাউজ নির্মাণ, ১০ কিলোমিটার পাইপ লাইন স্থাপন, ৩৫০টি গৃহে মিটার সংযোগ ও ১টি ওভারহেড ট্যাংক নির্মাণ (অপেক্ষমাণ)।

অপরদিকে, পানি সংরক্ষণ ও নিরাপদ পানি সরবরাহে জেলা পরিষদের পুকুর/দীঘি ও জলাশয় পুনঃখনন/সংস্কার প্রকল্পের আওতায় ২২টি পুকুর রয়েছে। দাকোপে ৬টি পুকুরের কাজ সম্পন্ন হয়েছে। কয়রার ৪টির কাজ দ্রুত শুরু হবে, ৯টির কাজ অপেক্ষমাণ। পাইকগাছার ৬টি এ তালিকায় রয়েছে।

স্বাস্থ্যসম্মত সুপেয় পানির ট্যাংকপাশাপাশি পল্লী অঞ্চলে পানি সরবরাহ প্রকল্পের আওতায় চারটি অগভীর নলকূপ, ৩৯টি গভীর নলকূপ, ১৮টি রেইন ওয়াটার হার্ভেস্টিং, মাল্টিপল হ্যান্ডপাম্প সিস্টেমে ৭টি গভীর নলকূপ, ১০টি পুকুর খনন (দাকোপে ৪টি, পাইকগাছায় ৫টি, কয়রায় ১টি) করা হবে।

এছাড়া ৩২টি পৌরসভায় পানি সরবরাহ ও মানববর্জ্য ব্যবস্থাপনাসহ এনভায়রনমেন্টাল স্যানিটেশন প্রকল্পের আওতায় দাকোপে ৫টি পাবলিক টয়লেট, ৭টি কমিউনিটি টয়লেট, ১৪টি কমিউনিটি বিন, ১টি ওভারহেড ট্যাংক/রিজার্ভার/ট্রিটমেন্ট প্ল্যান্ট স্থাপন করা হবে। প্রায় ২০ কোটি টাকার এ প্রকল্পটি ২০১৯-২০ অর্থবছরের মধ্যে বাস্তবায়িত হবে।

/এসটি/

x