পিরোজপুরে সহকারী কমিশনারের স্ত্রীকে ফের ছুরিকাঘাত

পিরোজপুর প্রতিনিধি ০২:৪৮ , নভেম্বর ০৯ , ২০১৮

হাসপাতালে অদিতি বড়ালপিরোজপুর সদর উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) রামানন্দ পালের বাসায় ঢুকে তার স্ত্রী অদিতি বড়ালকে ছুরি দিয়ে কুপিয়ে জখম করেছে সন্ত্রাসীরা। বৃহস্পতিবার (৮ নভেম্বর) সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে পিরোজপুর শহরের ধূপপাশা এলাকায় জেলা প্রশাসনের ডরমেটরি ভবনে এ ঘটনা ঘটে। আহত অদিতি বড়ালকে পিরোজপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।
এর আগে রামানন্দ পাল বেতাগী উপজেলার সহকারী কমিশনার (ভূমি) হিসেবে থাকাকালে ৩ জুলাই অদিতি বড়ালকে আরও একবার ছুরিকাঘাত করা হয়। গত বছরের ১৬ ডিসেম্বর বাবার বাড়ি বাগেরহাটের চিতলমারীর বাসায় ঘুমন্ত অবস্থায় তাকে জানালা দিয়ে কুপিয়ে গুরতর জখম করা হয়েছিল।
অদিতি বড়াল বাগেরহাটের চিতলমারী উপজেলার সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান কালিদাস বড়াল ও মহিলা সংসদ সদস্য হ্যাপি বড়ালের মেয়ে। কালিদাস বড়াল কয়েক বছর আগে সন্ত্রাসীদের গুলিতে নিহত হয়েছেন।
অদিতি বড়ালের স্বামী সহকারী কমিশনার (ভূমি) রামানন্দ পাল জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তিনি ও তার স্ত্রী ঘুরতে যান। এরপর স্ত্রীকে বাসায় রেখে তিনি জেলা প্রশাসকের বাসভবনে যান। কিছুক্ষণ পর তিনি জানতে পারেন তার স্ত্রীকে ছুরিকাঘাত করা হয়েছে। হামলার সময় বাসায় তার স্ত্রী ও গৃহকর্মী ছিল।
গৃহকর্মী বন্যা জানান, নীল শার্ট পরা এক যুবক কলিং বেল চেপে জানায়- সে অফিস থেকে এসেছে। দরজা খোলার সঙ্গে সঙ্গে সে ভেতরে ঢুকে অদিতি বড়ালকে ছুরিকাঘাত করে। এ সময় ওই যুবক তাকেও (গৃহকর্মী) ছুরিকাঘাত করে পালিয়ে যায়। পালিয়ে যাওয়ার সময় হুমকি দিয়ে যায়- বেশি বাড়াবাড়ি করলে তোদের দেখে নেব।
পিরোজপুর সদর হাসপাতালের চিকিৎসক শাকিল সরোয়ার বলেন, অদিতি বড়ালের পেটের নিচের অংশে ও হাতে ছুরি দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। তিনি আশঙ্কামুক্ত। পিরোজপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) এস এম জিয়াউল হক বলেন, আহত অদিতি বড়ালকে পুলিশি নিরাপত্তায় রাখা হয়েছে। হামলাকারীকে আটকের চেষ্টা চলছে।
পিরোজপুরের জেলা প্রশাসক আবু আলী মো. সাজ্জাদ হোসেন বলেন, অদিতি বড়ালের নিরাপত্তা জোরদার এবং পুলিশ বিভাগকে বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

/ওআর/

x