হিলিতে পেঁয়াজের দাম কমেছে কেজিতে ৫ টাকা

হিলি প্রতিনিধি ১৮:৪৩ , মার্চ ১৫ , ২০১৯

পেঁয়াজ (ফাইল ছবি)

দুইদিনের ব্যবধানে দিনাজপুরের হিলিতে পাইকারি বাজারে পেঁয়াজের দাম কমেছে কেজিতে ৫ টাকা। দুইদিন আগে পাইকারিতে প্রকারভেদে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ১৪ থেকে ১৫ টাকায় বিক্রি হয়েছে, যা বর্তমানে বিক্রি হচ্ছে ১০ থেকে ১৫ টাকায়। ব্যবসায়ীরা জানান, ভারতের বাজারে নতুন জাতের পেঁয়াজ উঠায় দাম কমেছে।

হিলি স্থলবন্দর ঘুরে জানা গেছে, এ স্থলবন্দর দিয়ে আগে যেখানে গড়ে প্রতিদিন ৩৫-৪০ ট্রাক পেঁয়াজ আমদানি হতো। সেখানে বর্তমানে ১০-১৫ ট্রাক করে পেঁয়াজ আমদানি হচ্ছে। তবে গতকাল (বৃহস্পতিবার) বন্দর দিয়ে মাত্র ৮ ট্রাক পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে। বন্দর দিয়ে নাসিক, ইন্দোর ও নতুন সুখসাগর জাতের পেঁয়াজ আমদানি হচ্ছে।

বর্তমানে সুখসাগর জাতের পেঁয়াজ পাইকারিতে ট্রাকসেল সাড়ে ৯ থেকে ১০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। আর নাসিক ও ইন্দোর জাতের পেঁয়াজ ১৪ থেকে ১৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। তবে পাইকারিতে দাম কমার প্রভাব খুচরা বাজারে এখনও পড়েনি।

বাংলাহিলি বাজার ঘুরে দেখা গেছে, আমদানি করা ভারতীয় পেঁয়াজ ১৮ থেকে ২০ টাকা দরে এবং দেশীয় জাতের পেঁয়াজ ২৫ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। কিছুদিন আগে এসব জাতের পেঁয়াজ ৫-৬ টাকা কমে বিক্রি হয়েছিল।

হিলি স্থলবন্দর আমদানি রফতানিকারক গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশীদ হারুন ও পেঁয়াজ ব্যবসায়ী রবিউল ইসলাম বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, গত সপ্তাহে বৃষ্টিপাতে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে পেঁয়াজের ক্ষেত নষ্ট হয়েছে। এ কারণে বাজারে দেশীয় পেঁয়াজের সরবরাহ খানিকটা কমে গেছে। এর ফলে বাজারে ভারতীয় পেঁয়াজের চাহিদা খানিকটা বেড়েছে। অন্যদিকে, বন্দর দিয়ে পেঁয়াজের আমদানি কম হওয়ায় চাহিদার তুলনায় পেঁয়াজের সরবরাহ কম। এ কারণে পেঁয়াজের দাম খানিকটা বেড়ে গিয়েছিল। সম্প্রতি ভারতের বাজারে সুখসাগর জাতের নতুন পেঁয়াজ আসার ফলে দুই দিনের ব্যবধানে পেঁয়াজের দাম খানিকটা কমেছে।

তিনি আরও জানান, কিছুদিনের মধ্যে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে দেশীয় নতুন জাতের পেঁয়াজ উঠতে শুরু করবে। এতে দেশীয় পেঁয়াজের সরবরাহ স্বাভাবিক হবে এবং দাম আরও কমবে।

 

/এমএ/

x