নাটোরে ছুরিকাঘাতে স্কুল শিক্ষিকাকে হত্যা

নাটোর প্রতিনিধি ১০:০৬ , জুলাই ২৪ , ২০১৯

হত্যা

নাটোরের গুরুদাসপুরে লতিফা হেলেন নামে এক স্কুল শিক্ষিকাকে ঘুমন্ত অবস্থায় ছুরিকাঘাতে হত্যা করা হয়েছে। হত্যার পর তার লাশ পুকুরে ফেলে দেয় দুর্বৃত্তরা। মঙ্গলবার (২৩ জুলাই) রাতে উপজেলার গোপিনাথপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটেছে। গুরুদাসপুর থানার ওসি মোজাহারুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

পুলিশ ও স্থানীয়দের দেওয়া তথ্য মতে, স্বামীর সঙ্গে তালাক হওয়ার পর থেকে নিহত লতিফা ওরফে মঞ্জুয়ারা তার মায়ের বাড়িতে বসবাস করে আসছিলেন। মঙ্গলবার রাতে তিনি একাই বাড়িতে ছিলেন। তিনি ছিলেন স্থানীয় ব্কাশো প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক। বুধবার (২৪ জুলাই) সকাল ৯টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত হত্যার কারণ উদঘাটন বা ঘটনার সঙ্গে জড়িত কাউকে আটক করতে পারেনি পুলিশ।

ওসি মোজাহারুল ইসলাম জানান, ব্কাশো সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক লতিফা হেলেন স্বামীর সঙ্গে ডিভোর্সের পর গোপীনাথপুর গ্রামে মায়ের বাসায় বসবাস করে আসছিলেন। তার একমাত্র শিশু ছেলে সাবেক স্বামীর সঙ্গে বসবাস করছে।

পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার সন্ধ্যার দিকে হেলেনের মা পাশের গ্রামে তার মামা বাড়িতে জমির  বিষয়ে কথা বলতে যান। এসময় হেলেন একাই বাড়িতে ছিলেন। রাত ১০টা ৪০ মিনিটের দিকে হেলেনের মা বাড়িতে ফিরে ঘরের দরজা খোলা পান। ঘরের ভেতরে হেলেনকে দেখতে না পেয়ে তিনি খোঁজাখুঁজি শুরু করেন।এক পর্যায়ে বাড়ির পাশে পুকুরে হেলেনের ভাসমান লাশ দেখতে পান। খবর পেয়ে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে।

ওসি মোজাহারুল ইসলাম জানান, সন্ধ্যার পর থেকে প্রচুর বৃষ্টি হচ্ছিল। এসময়  বাড়িতে একা পেয়ে দুর্বৃত্তরা শোবার ঘরে ঢুকে হেলেনকে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে। এরপর তার লাশ পাশের পুকুরে পালিয়ে যায় খুনিরা। নিহতের মাথায় ছুরিকাঘাতের চিহ্ন পাওয়া গেছে। হেলেনের  মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য নাটোর সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। খুব শিগগিরই এই হত্যা রহস্য উদঘাটন হবে বলে আশা প্রকাশ করেন ওসি। /এপিএইচ/

/এপিএইচ/

x