‘ওকজা’র প্রদর্শনীতে ১০ মিনিটের হৈচৈ!

জনি হক, কান (ফ্রান্স) থেকে ০২:৪৪ , মে ২০ , ২০১৭

পালে দো ফেস্টিভাল ভবনের সুবিশাল প্রেক্ষাগৃহ গ্র্যান্ড থিয়েটার লুমিয়ের কানায় কানায় পূর্ণ। কারণ শুক্রবার (১৯ মে) সকাল সাড়ে ৮টায় আমন্ত্রিত সাংবাদিকদের জন্য প্রতিযোগিতা বিভাগের ছবি ‘ওকজা’র প্রদর্শনী হচ্ছে এখানেই। কিন্তু কারিগরি ত্রুটির কারণে ছবির প্রজেকশন শুরুর ১০ মিনিট পরেও পর্দায় বোঝা যাচ্ছিল না কিছুই।

‘ওকজা’র প্রদর্শনীর শুরুতে কারিগরি ত্রুটির সময় তোলা ছবিব্যস, আর যায় কোথায়! হৈচৈ পড়ে গেলো। যদিও ১০ মিনিট পর পুনরায় শুরু থেকে স্বাভাবিকভাবে শেষ হয়েছে প্রদর্শনী।

কান উৎসবের মতো বৈশ্বিক আসরে এমন অনাকাঙ্ক্ষিত চিত্র সচরাচর দেখা যায় না। সোরগোল বেঁধেছে জানতে পেরে উৎসব পরিচালক ও তার দলবল সংবাদ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ছবিটির প্রযোজক ও প্রেক্ষাগৃহে উপস্থিত দর্শকদের কাছে ক্ষমা চেয়েছেন।

সামান্য ঘটনায় এত হৈচৈ বেশি হওয়ার কারণ কোরিয়ার বং জুন-হো পরিচালিত ‘ওকজা’য় অর্থলগ্নি করেছে নেটফ্লিক্স ওয়েবসাইট। ফ্রান্সের প্রেক্ষাগৃহের পরিবর্তে নিজেদের ওয়েবসাইটে ছবিটি মুক্তি দিতে নেটফ্লিক্সের সিদ্ধান্তের কারণে এবারের কানে শুরু থেকে চলছে বিতর্ক। প্রতিযোগিতা বিভাগের বিচারকদের সভাপতি পেদ্রো আলমোদোভার ও বিচারক উইল স্মিথ ভিন্নমত পোষণ করেছেন এ নিয়ে।

এ কারণে শুক্রবার লুমিয়েরের পর্দায় নেটফ্লিক্সের লোগো ভেসে উঠতেই দর্শকদের অনেকে টিপ্পনী কেটেছেন। কারিগরি ত্রুটির পেছনে ধরে নেওয়া হচ্ছে, ভুল অনুপাতে প্রিন্ট দেওয়ায় এ ঘটনা ঘটেছে। বিবিসির সাংবাদিক লরেন টার্নার অন্তত তাই মনে করছেন।

‘ওকজা’ ছবির দৃশ্যে টিল্ডা সুইনটন ও শিশুশিল্পী অন সহিউছবিটি নিয়ে শুরুতে বিদ্রুপ হলেও দক্ষিণ কোরীয়-আমেরিকান এই রোমাঞ্চকর ছবিটির প্রদর্শনী শেষে সবাই করতালি দিয়ে প্রশংসা করেন। এর গল্প দক্ষিণ কোরিয়ার পাহাড়ি এলাকার বালিকা মিজাকে ঘিরে। নিজের সেরা বন্ধু ওকজাকে অপহরণ করে নিউইয়র্কে নিয়ে আসা বহুজাতিক একটি প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে দাঁড়ায় সে। ওকজা হলো বিশাল আকারের এক প্রাণি।

এর আগে বৃহস্পতিবার (১৮ মে) প্রতিযোগিতা বিভাগের আরেক ছবি ‘ওয়ান্ডারস্ট্রাক’-এর প্রদর্শনী শুরুর আগে অ্যামাজনের লোগো ভেসে ওঠায় টিপ্পনী কাটেন অনেকে। এ ছবিতে অভিনয় করেছেন জুলিয়ান মুর ও মিশেল উইলিয়ামস।

উৎসবের উদ্বোধনী দিনে পেদ্রো আলমোদোভার প্রেক্ষাগৃহে ছবির প্রদর্শনীর পক্ষে মত দেন। সিনেমা হলে দেখানো না হলে কোনও ছবির পাম দ’র জেতা উচিত নয় বলেও মন্তব্য করেন তিনি। তবে শুক্রবার সকাল ১১টায় সংবাদ সম্মেলনে এসে ‘ওকজা’র অভিনেত্রী ও সহ-প্রযোজক টিল্ডা সুইনটন জানান, কানে হাজারও ছবির প্রদর্শনী হয়েছে যেগুলো প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায়নি।

টিল্ডার মতো সংবাদ সম্মেলনে নেটফ্লিক্সের গুনগান করেছেন পরিচালক বং জুন-হো। তার দাবি, বড় বাজেট পাওয়ায় তার সুবিধা হয়েছে। ছবিটিতে আরও অভিনয় করেছেন জেক গিলেনহাল, পল ড্যানো, লিলি কলিন্স, শিশুশিল্পী অন স-হিউ।কান মঞ্চে টিম ‘ওকজা’

/জেএইচ/এমএম/

x