Vision  ad on bangla Tribune

কান-বিকেলের সোনালি আলোয় অ্যাশ

বিনোদন রিপোর্ট, কান (ফ্রান্স) থেকে ০৩:১৪ , মে ২০ , ২০১৭

কখনও কখনও রূপও নির্বাক করে দেয়। দৃষ্টি তখন থাকে অপলক। বলিউড অভিনেত্রী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চনকে শুক্রবার (১৯ মে) কান-বিকেলের সোনালি আলোয় দেখে মনে হলো, রূপকথার পরীরাও যেন হার মানে! ডিজনির প্রিন্সেসরা সাবেক এই বিশ্বসুন্দরীকে দেখলে হিংসায় মরে যেতো নির্ঘাত! তার সৌন্দর্যের আলোয় পৃথিবীতেই যেন খুলে যায় স্বর্গের দুয়ার!

কানের লালগালিচায় হাতের কারুকাজ করা নীল পাউডার রঙের বলগাউন পরে হাজির হন অ্যাশ। পোশাকটি মাইকেল সিঙ্কো ব্র্যান্ডের। এবারের উৎসবের লালগালিচায় এটাই তার প্রথম উপস্থিতি।

এ নিয়ে ১৬ বার কানে দেখা গেলো তাকে। এ যাত্রায়ও সৌন্দর্য প্রসাধনী পণ্য লরিয়াল প্যারিসের দূতিয়ালি করতে এসেছেন তিনি। লালগালিচায় পায়চারির মাঝে এক হাত ঠোঁটের কাছে এনে ভালোবাসা উড়িয়ে দিলেন ৪৩ বছর বয়সী এই চিরযৌবনা।
নীল পোশাকটি শরীরে জড়ানোর আগে শুক্রবার আরও দুটি গাউন পরেন ঐশ্বরিয়া। শুরুতে রঙিন ফুলের ছাপ জুড়ানো সবুজ পোশাকে সেজেছিলেন তিনি। কানসৈকতে এসে আলোকচিত্রীদের সামনে দাঁড়িয়ে সূর্যস্নানও করে নিয়েছেন।
আরেকটি হলো ফুলের নকশা করা ক্রিম রঙের ছড়ানো গাউন। তখন লরিয়াল প্যারিসের আরেক শুভেচ্ছাদূত মার্কিন অভিনেত্রী ইভা লঙ্গোরিয়ার সঙ্গে কুশল বিনিময় করেন তিনি।
এ বছর ঐশ্বরিয়ার জন্য কান স্পেশাল। কারণ ২০০২ সালের ছবি ‘দেবদাস’ ১৫ বছর পর আবার উপস্থাপন করছেন তিনি। মুক্তির সময় শাহরুখ খান ও পরিচালক সঞ্জয়লীলা বানসালির সঙ্গে সাগরপাড়ের শহরটিতে এসেছিলেন অ্যাশ। এবার অবশ্য তার সঙ্গে আছে পাঁচ বছরের মেয়ে আরাধ্য বচ্চন।

কানের পথে পথে...কান-সৈকতে একান্তে...

/জেএইচ/এমএম/

 

 

Advertisement

Advertisement

Pran-RFL ad on bangla Tribune x