অবশেষে আনকাট সেন্সর পেল ‘বস-টু’ ও ‘নবাব’

বিনোদন রিপোর্ট ১৯:৪৮ , জুন ২১ , ২০১৭

ছবি দুটির পোস্টারে শাকিব ও জিৎবিএফডিসি, তথ্য মন্ত্রণালয় বা সেন্সর বোর্ড- সব চৌকাঠ পেরিয়ে সেন্সর পেল বহুল আলোচিত যৌথ প্রযোজনার ছবি ‘বস-টু’ ও ‘নবাব’। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ড রাত পৌনে ৮টায় বাংলা ট্রিবিউনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।
বোর্ডের সদস্য প্রযোজক নাসিরুদ্দিন দিলু জানান, দুপুরের পর থেকে ছবি দুটি দেখেছেন বোর্ডের সদস্যরা। এরপর সন্ধ্যায় সদস্যরা এ চলচ্চিত্র দুটি বিনা কর্তনে ছাড়পত্র দিতে সম্মত হোন। এর ফলে ছবিটির মুক্তিতে কোনও বাধা থাকলো না।
এদিকে, গত কয়েকদিন ধরেই শাকিব-শ্রভশ্রী অভিনীত ‘নবাব’ ও জিৎ-ফারিয়ার ‘বস-টু’ ছবি নিয়ে উত্তপ্ত হাওয়া বইছে বিএফডিসিতে। পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন ও আন্দোলন করে আসছে পক্ষ-বিপক্ষ। যৌথ প্রযোজনার অনিয়ম বন্ধের দাবিতে সরব চলচ্চিত্র ঐক্যজোট। গতকাল (মঙ্গলবার) ও আজ সেন্সর বোর্ড ঘেরাও করেন তারা। এমনকি সেখানে অপ্রীতিকর পরিস্থিতির শিকার হন বাংলাদেশ চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ডের সদস্য ও মধুমিতা প্রেক্ষাগৃহের অন্যতম কর্ণধার ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ।
আজ (২১ জুন) দুপুরে তাকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করা হয়। সবকিছু মিলিয়ে বেশ উত্তেজনাকর পরিস্থিতির মধ্যে সেন্সর বোর্ড ছবি দুটির ছাড়পত্র দিলো সন্ধ্যা নাগাদ।
ছবি দুটি সেন্সর পাওয়াতে বেশ খুশি জাজ পরিবার। জাজের কর্ণধার আবদুল আজিজ বলেন, ‘ছবি দুটি সেন্সর ছাড়পত্র পাওয়ায় আমরা আনন্দিত। যারা এ চলচ্চিত্র দুটির পাশে ছিলেন তাদের সবার প্রতি আমরা কৃতজ্ঞ।'
তিনি আরও জানান ‘বস-টু’ ১০০টি হলে ও নবাব ১২০টি হলে মুক্তি পেতে পারে ঈদে। এ সংখ্যা বৃদ্ধির সম্ভাবনাও রয়েছে।
এদিকে, বিষয়টি নিয়ে ঐক্যজোটের অন্যতম শরিক বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতি ও অভিনেতা মিশা সওদাগর ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। মিশা বলেন, ‌‘এ ছবি দুটি সেন্সর পাওয়া দুঃখজনক। আমরা শিগগিরই পরবর্তী পদক্ষেপ গ্রহণ করতে যাচ্ছি।’
আজ (২১ জুন) রাতেই চলচ্চিত্র ঐক্যজোট তাৎক্ষণিক মিটিং ডেকেছে। এ মিটিংয়ের পরই তাদের পরবর্তী কর্মসূচি ঘোষণা করবেন।
অন্যদিকে ছবি দুটি নিয়ে সামাজিক মাধ্যমেও বেশ আলোচনা-সমালোচনা চলছিল। অনেকে এর পক্ষে অবস্থান নিয়েছিলেন, আবার বিপক্ষের পাল্লাটাও কম ভারি নয়। তবে ‘নবাব’ ছবিতে শাকিব খানের অন্যরূপ দর্শকদের বাড়তি আগ্রহ তৈরি করেছে এরমধ্যে। আর ‘বস-টু’-তে নুসরাত ফারিয়ার একটি আইটেম গান নিয়ে বিপাকে পড়েছিল ছবি সংশ্লিষ্টরা। ছবি দুটিই যৌথ প্রযোজনার।
‘বস-টু’ ছবিটি পরিচালনা করেছেন কলকাতার বাবা যাদব আর ‘নবাব’-এ এই দায়িত্ব পালন করেছেন জয়দ্বীপ চ্যাটার্জি।  দুটিরই অপর পরিচালক বাংলাদেশের প্রযোজক আবদুল আজিজ।
/এসএস/এম/এমএম/

x