টেলিছবি ‘ফেরা’, রাজবাড়ীতে ৬ দিন!

বিনোদন রিপোর্ট ২২:০৫ , মে ২৪ , ২০১৯

শুটিংয়ে আশনা হাবিব ভাবনাগত ৪ দিন রাজধানীর অদূরে রাজবাড়ীতে পড়ে আছে অনিমেষ আইচের শুটিং ইউনিট। পুরো টিমের থাকতে হবে ন্যূনতম আরও ২ দিন। না, থমকে নেই—শুটিং চলছে রাত-দিন টানা।
নির্মাতার সঙ্গে যেখানে আছেন মামুনুর রশীদ, রওনক হাসান, মামনুন ইমন, আশনা হাবিব ভাবনাসহ অনেকেই।
তাদের উদ্দেশ্য ঈদের জন্য বিশেষ শুটিং। স্বাভাবিক নিয়মেই ভাবনার কাছে জিজ্ঞাসা ছিল, মোট ক’টি কাজ করছেন ৬ দিনে? সবগুলোর নায়িকাও নিশ্চয়ই আপনিই। কোনোটাতে রওনক হাসান, কোনোটাতে ইমন। এভাবেই তো দেশ ও বিদেশের মাটিতে নাটকগুলো হচ্ছে এখন।
প্রত্যুত্তরে ভাবনার কণ্ঠে রাগ স্পষ্ট। শুক্রবার (২৪ মে) বিকালে রাজবাড়ী থেকে মুঠোফোনে বললেন, ‘আমরা ৬ দিনে মাত্র একটি কাজ ঠিকঠাক শেষ করার চেষ্টা করছি। ৪ দিন পার হলো। ভাবছি, বাকি দুদিনে শেষ করতে পারবো কি না! কারণ, বৃষ্টিতেও বাধা পড়ছে কাজে।’
একটি দৃশ্যে ইমন ও ভাবনাএটি একটি টেলিছবি। নাম ‘ফেরা’। চিত্রনাট্য ও পরিচালনা করছেন অনিমেষ আইচ। এতে ময়না চরিত্রে অভিনয় করছেন আশনা হাবিব ভাবনা। তার বাবার চরিত্রে মামুনুর রশীদ। অন্যদিকে স্বামীর চরিত্রে ইমন আর সহকর্মী হিসেবে দেখা যাবে রওনক হাসানকে।
টেলিছবির গল্পটি প্রসঙ্গে পরিচালক ধারণা দেন এভাবে—ময়নার মাকে তার বাবা মামুনুর রশীদ পুড়িয়ে মেরে ফেলে। এরপর গৃহশিক্ষক ইমনের হাত ধরে বেরিয়ে পড়ে ময়না। বিয়ে করে তারা। একসময় স্বামী অসুস্থ হয়ে বিছানায় পড়ে থাকে। বাধ্য হয়ে ময়না একটা চাকরির ব্যবস্থা করে রওনক হাসানের মাধ্যমে। এরপর অসুস্থ স্বামী সন্দেহ করতে থাকে স্ত্রী ভাবনাকে। ইমন ভাবে রওনক হাসানের সাথে প্রেম হয়ে গেছে তার স্ত্রীর। একদিন ভাবনাকে গলা টিপে মেরে ফেলে ইমন। ঘটনা মোড় নেয় অন্যদিকে।
কাজটি প্রসঙ্গে আশনা হাবিব ভাবনা বলেন, ‘সবচেয়ে বড় কথা ৬ দিনে একটা কাজই করছি। এখন তো ১ দিনেই সব হয়! এখানে আমাদের সিনের পর সিন নামাতে হচ্ছে না। অভিনয় করার সুযোগ পাচ্ছি। মামুন আংকেল, রওনক ভাই, ইমন আছেন। এরা প্রত্যেকেই অভিনয়ে অসাধারণ। আমরা সময় নিয়ে অনেক ভালো একটা কাজ করার চেষ্টা করছি। আমার মনে হয়, হাজার কাজের ভিড়ে এই কাজটা থেকে যাবে।’
অনিমেষ আইচ জানান, টেলিছবিটি প্রচার হবে বেসরকারি একটি টিভি চ্যানেলে, আসছে ঈদে।শুটিংয়ের ফাঁকে ইমন ও রওনক হাসান

/এমএম/এমওএফ/

x