বাংলাদেশের কারণে চাঙ্কিকে ভুলে গেছে ভারতীয় শিশুরা!

বিনোদন ডেস্ক ১৩:২৩ , জুলাই ১১ , ২০১৯

চাঙ্কিএকসময় বলিউডে বেশ খ্যাতি অর্জন করেছিলেন অভিনেতা চাঙ্কি পান্ডে। এরপর হুট করেই কাজ শুরু করেন বাংলাদেশের চলচ্চিত্রে। সে সময় ভারতের চলচ্চিত্র জগত থেকে সরে গিয়েছিলেন তিনি।
আর এ কারণেই নাকি শিশু ও নতুন প্রজন্ম তাকে ভুলে গেছেন বলে মনে করছেন তিনি। চাঙ্কি ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আইএনআইএস’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এমনটাই বলেছেন। তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশে কাজ করার ৮ বছর পর আমি বলিউডে ফিরি। কিন্তু ফিরে বুঝতে পারি এ দেশের শিশুরা আমাকে চেনে না। অনেকেই আমাকে ভুলে গেছেন। তাই আমি শিশুদের ছবিতে কাজ করা শুরু করেছি।’


১৯৯৩ সালে তিনি এ দেশের চলচ্চিত্রে কাজ করেন। এখানে তিনি বেশ সফলও হন।মেয়েরাও মানুষ ছবির ইউটিউব পোস্টার

চাঙ্কি দুই দশকেরও বেশি সময় ধরে ৮০টিরও বেশি সিনেমায় অভিনয় করেছেন। ‘তেজাব’ সিনেমায় সহ-অভিনেতা হিসেবে অভিনয়ের জন্য একবার পুরস্কারের জন্য মনোনয়ন পান। ১৯৮৭ থেকে ১৯৯৪ সাল পর্যন্ত তিনি হিন্দি সিনেমায় প্রধান অভিনেতার ভূমিকায় অভিনয় করা শুরু করেন। কিন্তু তার সফল সিনেমাগুলো আসে ১৯৮৭ থেকে ১৯৯২ সাল পর্যন্ত। তিনি অনিল কাপুর, সানি দেওল ও গোবিন্দর মতো নায়কদের সঙ্গে সহ-অভিনেতা হিসেবে কাজ করেন। তাই এককভাবে তিনি সেভাবে সফলতা পাননি। সে সময় তিনি প্রধান অভিনেতা হিসেবে চেষ্টা করে সফল না হওয়ার ফলে বাংলাদেশে কাজ শুরু করেন। চাঙ্কি পান্ডে ২০০৩ সালে পুনরায় বলিউড চলচ্চিত্রে বিভিন্ন চরিত্রে অভিনেতা হিসেবে ফিরে আসেন।গোবিন্দের সঙ্গে চাঙ্কি

এরপর তার সবচেয়ে সফল ছবি হলো ২০১০ সালে মুক্তি পাওয়া ‘হাউজফুল’। পরের বছরও তিনি এর সিক্যুয়েলে অভিনয় করেছেন।স্বামী কেন আসামী ছবির প্রচ্ছদে চাংকি
২০০৩ সালে বলিউডে ফেরার পর ২০টির বেশি ছবিতে হাজির হয়েছেন, কিন্তু সেভাবে আর কখনোই আলোচনায় আসতে পারেনি এই তারকা।
সূত্র: আইএনএএস

/এম/এমওএফ/

x