গাজায় ইসরায়েলি হত্যাযজ্ঞে জাতিসংঘ ‘শেষ হয়ে গেছে’: এরদোয়ান

বিদেশ ডেস্ক ১০:১৮ , মে ১৭ , ২০১৮

গাজায় ইসরায়েলি সেনাবাহিনীর গুলিতে ৬০ জনের বেশি ফিলিস্তিনি নিহতের ঘটনায় কার্যকর পদক্ষেপ নিতে না পারায় জাতিসংঘ ‘শেষ হয়ে গেছে’ বলে মন্তব্য করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়্যেব এরদোয়ান।  বুধবার তুরস্কের রাজধানী আঙ্কারায় এক ইফতার মাহফিলে তিনি এই মন্তব্য করেন।

রজব তাইয়্যেব এরদোয়ান

২০১৭ সালের ৬ ডিসেম্বর মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জেরুজালেমকে ইসরায়েলের একক রাজধানীর স্বীকৃতি দেন। এরই ধারাবাহিকতায় বিশ্বজুড়ে তুমুল নিন্দা ও প্রতিবাদের ঝড় উপেক্ষা করে সোমবার জেরুজালেমে দূতাবাস স্থানান্তর করে যুক্তরাষ্ট্র। সোমবার ভূমি দিবসের কর্মসূচি চলমান থাকা অবস্থায় জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস স্থানান্তরকে কেন্দ্র করে জোরালো হওয়া বিক্ষোভে ইসরায়েলি বাহিনীর হত্যাযজ্ঞের শিকার হয় ৬০ ফিলিস্তিনি। আহত হয় ২৭০০ মানুষ। বুধবার আরও দুই ফিলিস্তিনি নিহত হন। 

এরদোয়ান বলেন, জাতিসংঘ শেষ হয়ে গেছে, ভেঙে পড়েছে। ভালো বন্ধুত্ব থাকার পরও এই মুহূর্তে আমি জাতিসংঘের মহাসচিবের সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারছি না।

তুর্কি প্রেসিডেন্ট জানান, জেরুজালেমকে কখনও ইসরায়েলের করায়ত্ত করতে দেবেন না তারা। তিনি বলেন, ফিলিস্তিনি ভাইদের লড়াইয়ে আমরা সমর্থন দিয়ে যাব। দীর্ঘদিন ধরে দখলে থাকা ভূখণ্ডে স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্রের সীমান্তেশান্তি ও নিরাপত্তা না আসবে ততদিন সমর্থন দেওয়া হবে।

ইসরায়েলি হামলার ঘটনায় আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় ব্যর্থ হয়েছে উল্লেখ করে এরদোয়ান জানান, বিশ্বের অন্য কোথাও এমন হত্যাযজ্ঞ ঘটলে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় অনেক বেশি সক্রিয় হতো। তিনি বলেন, এই নিপীড়নে বিশ্ব চোখ বুজে থাকলেও আমরা ইসরায়েলের বিরুদ্ধে নীরব থাকব না।

এর আগে এরদোয়ান ঘোষণা দেন, ফিলিস্তিনিদের প্রতি সংহতি জানিয়ে শুক্রবার ইস্তাম্বুলে একটি মিছিল বের করা হবে। এছাড়া অর্গানাইজেশন অব ইসলামিক কোঅপারেশনের (ওআইসি) সভাপতি হিসেবে এরদোয়ান জরুরি বৈঠক ডেকেছেন। বৈঠকটি শুক্রবার ইস্তাম্বুলে অনুষ্ঠিত হবে। সূত্র: আনাদোলু এজেন্সি।

 

/এএ/

x