একই সময়ে রাশিয়ায় নেতানিয়াহু ও ইরানের শীর্ষ কর্মকর্তা

বিদেশ ডেস্ক ০৩:২৮ , জুলাই ১২ , ২০১৮

সিরিয়া যুদ্ধ নিয়ে আলোচনার জন্য ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর রাশিয়া সফরের মধ্যেই মস্কোতে হাজির থাকবেন শীর্ষ এক ইরানি কর্মকর্তা। ইসরায়েল সরকার ও বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের খবর অনুযায়ী মস্কোর স্থানীয় সময় বুধবার দুপুরে প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে বৈঠক করবেন নেতানিয়াহু। এই আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে থাকবে সিরিয়া যুদ্ধ আর যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটিতে ইরানের ভূমিকা। তার কিছুক্ষণের মধ্যেই সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ খোমেনির গুরুত্বপূর্ণ বার্তা নিয়ে মস্কোতে হাজির হবেন ইরানের শীর্ষ এক কর্মকর্তা। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরা জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার ওই ইরানি কর্মকর্তার সঙ্গে পুতিনের বৈঠকের কথা রয়েছে।

আট বছর ধরে গৃহযুদ্ধ চলা সিরিয়ায় ইরানের উপস্থিতিকে নিজেদের জন্য ক্ষতিকর বিবেচনা করে ইসরায়েল। সিরিয়ার প্রেসিডেন্ট বাসার আল আসাদ সরকারের সমর্থনে সেখানে মস্কোর সঙ্গে মিলে তেহরানের সামরিক উপস্থিতি রয়েছে। সিরিয়া ও প্রতিবেশি লেবাননে ইরান সমর্থিত সশস্ত্র গ্রুপের অবস্থানকে নিরাপত্তা হুমকি বিবেচনা করে ইসরায়েল। ইরান ও তাদের আঞ্চিলক মিত্র হেজবুল্লাহর নিয়ন্ত্রণাধীন এলাকায় গত মে মাসেও বোমাবর্ষণ করেছে ইসরায়েল। সাম্প্রতিক বছরগুলোতে এরকম আরও কয়েকটি হামলা চালানো হয়েছে।

মস্কোয় রওনা দেওয়ার আগে তেল আবিব বিমান বন্দরে সাংবাদিকদের উদ্দেশে নেতানিয়াহু বলেছেন, ‘ইসরায়েল রাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তার জন্য এই সফর খুবই গুরুত্বপূর্ণ।’ আর ইরানের পররাষ্ট্র দফতর থেকে জানানো হয়েছে ইরান পারমাণবিক চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রের বের হয়ে যাওয়া পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার জন্যই মস্কো যাচ্ছেন সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ খোমেনির এক উপদেষ্টা।

ইরানের লেবার নিউজ এজেন্সি জানিয়েছে, ইরানের সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ খোমেনির শীর্ষ পররাষ্ট্র বিষয়ক উপদেষ্টা আলী আকবর ভেলেয়াতি বুধবার মস্কোতে পৌঁছাবেন। এই সফরে তিনি প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে আয়াতুল্লাহ খোমেনির ‘গুরুত্বপূর্ণ বার্তা’ পৌঁছে দেবেন।

আল জাজিরা জানিয়েছে, বুধবার মস্কো পৌঁছালেও ভেলেয়াতি বৃহস্পতিবার পুতিনের সঙ্গে বৈঠক করবেন। এছাড়া আরও একদিন অবস্থান করে রাশিয়ার কর্মকর্তাদের সঙ্গেও বৈঠকের কথা রয়েছে তার।

ইরানের পররাষ্ট্র দফতরের মুখপাত্র বাহরাম কাসেমি বলেছেন এই সফর ইরানের পারমাণবিক চুক্তি থেকে যুক্তরাষ্ট্রের বের হয়ে যাওয়ার পর তেহরানের কূটনৈতিক প্রচেষ্টার সঙ্গে সম্পর্কিত। কাসেমি জানান, ভেলেয়াতি মস্কো ছাড়াও চীন সফর করবেন। তিনি জানান পুতিন ও ভেলেয়াতির মধ্যকার বৈঠক খুবই গুরুত্বপূর্ণ হতে পারে।

আট বছর ধরে চলা গৃহযুদ্ধে এখন শক্ত অবস্থানে সিরিয়ার আসাদ সরকার। হামলা জোরালো করার পর সম্প্রতি দক্ষিণ সিরিয়ায় বিদ্রোহীদের আত্মসমর্পণে বাধ্য করতে সক্ষম হয়েছে তারা। তবে  সীমান্তের কাছে এসব অভিযানে অস্বস্তিতে আছে ইসরায়েল।

মঙ্গলবার নেতানিয়াহু ও জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মেইর বেন সাব্বাত পুতিনের বিশেষ প্রতিনিধি আলেক্সজান্ডার ল্যাভনেটিভ ও রাশিয়ার উপপররাষ্ট্রমন্ত্রী সের্গেই ভার্সিনিন ‘আঞ্চলিক অগ্রগতি’ নিয়ে বৈঠক করেছেন বলে জানিয়েচে ইসরায়েলের সংবাদমাধ্যম দ্য টাইমস অব ইসরায়েল। সংবাদমাধ্যমটির খবরে বলা হয়েছে, ওই বৈঠকে ইসরায়েল রাশিয়ার নেতাদের জানিয়ে দিয়েছে সিরিয়ায় ইরানের সামরিক উপস্থিতি সহ্য করবে না তারা।

বুধবার ইতালির একটি পত্রিকাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রাশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী সের্গেই শোইগু বলেছেন সিরিয়ার স্থিতিশীলতা রক্ষায় ইরানের ভূমিকা কেন্দ্রীয়।

সিরিয়ার জটিল যুদ্ধ পরিস্থিতিতে কেন্দ্রীয় ভূমিকায় থাকা রাশিয়া ইসরায়েলের সঙ্গেও সম্পর্ক বজায় রেখে চলেছে। গত মে মাসেও পুতিনের সঙ্গে বৈঠক করেন নেতানিয়াহু। ওই সময়ে তিনি সিরিয়াকে ভূমি থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য এস-৩০০ মিসাইল দেওয়া থেকে মস্কোকে বিরত থাকতে রাজি করাতে সক্ষম হন।

পর পর দুইদিনে ইরান ও ইসরায়েলের নেতাদের সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনার কয়েক দিনের মধ্যেই ফিনল্যান্ডের রাজধানী হেলসিঙ্কিতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে একটি সম্মেলনে যোগ দেওয়ার কথা রয়েছে ট্রাম্পের।

 

/জেজে/

x