‘হামলাকারীর বুলেট ফুরিয়ে যাওয়ার জন্য দোয়া করছিলাম’

বিদেশ ডেস্ক ১৫:৪৪ , মার্চ ১৫ , ২০১৯

শুক্রবার (১৫ মার্চ) নিউ জিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের আল নুর মসজিদে প্রবেশ করে ২০ মিনিট ধরে গুলি ছুড়েছে বন্দুকধারী। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম টিভিএনজেড-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এক প্রত্যক্ষদর্শী এ দাবি করেছেন। হামলা থেকে প্রাণে রক্ষা পাওয়া ওই প্রত্যক্ষদর্শী জানান, গুলির শব্দে আতঙ্কিত হয়ে জীবন বাঁচাতে দিগ্বিদিক ছুটোছুটি করছিলেন মুসুল্লিরা। আর হামলাকারী ক্রমাগত গুলি ছুড়ে যাচ্ছিলো। হামলাকারীর বন্দুকের গুলি শেষ হওয়ার জন্য দোয়া করছিলেন বলে জানান ওই প্রত্যক্ষদর্শী।

ক্রাইস্টচার্চ হামলার এক প্রত্যক্ষদর্শী

শুক্রবার (১৫ মার্চ) আল নুর মসজিদে যখন হামলা হয় তখন সেখানে জুমার নামাজ আদায় করছিলেন মুসুল্লিরা। টিভিএনজেডকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এক প্রত্যক্ষদর্শী জানান, তিনি দেখেছেন একজনের বুকে গুলি করছে হামলাকারী। ওই প্রত্যক্ষদর্শী বলেন, ‘আমি তার বুলেট শেষ হওয়ার অপেক্ষায় ছিলাম, মূলত আমি অপেক্ষা আর প্রার্থনা করছিলাম। বলছিলাম, হে খোদা, এ মানুষটার বুলেটগুলো ফুরিয়ে যাক।’

ওই প্রত্যক্ষদর্শী আরও জানান, হামলাকারী প্রথমে মসজিদে পুরুষদের জন্য নির্ধারিত নামাজ কক্ষে হামলা চালায়। এরপর সে নারীদের নামাজ কক্ষে গিয়ে গুলি ছুড়তে থাকে।

উল্লেখ্য, স্থানীয় সময় শুক্রবার (১৫ মার্চ) দুপুরে নিউ জিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে বন্দুকধারীর হামলা হয়। শহরের হাগলি পার্কমুখী সড়ক ডিনস এভিনিউতে আল নুর মসজিদ এবং লিনউডের আরেকটি মসজিদের কাছ থেকে গুলির শব্দ শোনা যায়। হামলায় ৪৯ জনের প্রাণহানি হওয়ার কথা নিশ্চিত করেছে নিউ জিল্যান্ড পুলিশ। এরইমধ্যে এ ঘটনায় চার সন্দেহভাজনকে আটক করা হয়েছে।

/এফইউ/এমওএফ/

x