২ মাসের মধ্যে সপ্তম ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা উ. কোরিয়ার

বিদেশ ডেস্ক ০১:০০ , আগস্ট ২৫ , ২০১৯

আবারও দুটি স্বল্পপাল্লার ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা চালিয়েছে উত্তর কোরিয়া। শনিবার নিজেদের পূর্ব উপকূলে তারা এই পরীক্ষা চালায়। দক্ষিণ কোরীয় সামরিক বাহিনীকে উদ্ধৃত করে এই তথ্য জানিয়েছে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স। গত ‍দুই মাসের মধ্যে এটি দেশটির সপ্তম ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা।

গত বছর পারমাণবিক পরীক্ষা বন্ধ এবং আন্তমহাদেশীয় ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা না চালানোর ঘোষণা দেয় উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উন। আন্তর্জাতিক পর্যবেক্ষকদের উপস্থিতিতে ধ্বংস করা হয় একটি পারমাণবিক স্থাপনা। এ বছরের ফেব্রুয়ারিতে ভিয়েতনামে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে উত্তর কোরিয়ার নেতা কিম জং উনের বৈঠক কোনও চুক্তি ছাড়াই শেষ হয়। কিম বাজে চুক্তির প্রস্তাব করেছেন এমন অভিযোগ করে বৈঠক ছেড়ে বেরিয়ে যান প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। গত মাসে কৌশলগত নিয়ন্ত্রিত অস্ত্র পরীক্ষার কথা স্বীকার করে পিয়ংইয়ং। গত জুনে ট্রাম্প এবং উনের মধ্যে সাক্ষাতের পর গত সপ্তাহেই প্রথমবারের মতো ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করে উত্তর কোরিয়া। ২৫ জুলাই দুটি পরীক্ষা চালায় তারা। এরপর ৩১ জুলাই দ্বিতীয়বারের মতো স্বল্পপাল্লার আরও দুটি ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করে পিয়ংইয়ং।  

শনিবার স্থানীয় সময় ৬.৪৫ এবং ৭.০২ টায় দক্ষিণ হামগয়ং প্রদেশের সুন্দুক শহর থেকে ৯৭ উচ্চতায় ৩৮০ কিলোমিটার দূরে জাপান সাগরে পরপর দুইটি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করে উত্তর কোরিয়া। দক্ষিণ কোরিয়া জানায়, যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে সামরিক মহড়া শেষে এই ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা গভীর উদ্বেগজনক।

১১ আগস্ট থেকে দক্ষিণ কোরিয়া ও যুক্তরাষ্ট্রের মূল মহড়া শুরু হওয়ার কথা থাকলেও সোমবার শুরু হয়েছে এর প্রস্তুতি। উত্তর কোরিয়া আগে থেকেই বলে আসছে এই মহড়া মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ও দক্ষিণ কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট মুন জায়ে ইন এর মধ্যে স্বাক্ষরিত চুক্তির লঙ্ঘন।

/এমএইচ/

x