উন্মোচিত হলো ট্রিপল ক্যামেরার আইফোন ১১ প্রো

বিদেশ ডেস্ক ০০:৩৭ , সেপ্টেম্বর ১১ , ২০১৯

উন্মোচিত হলো বহুল আলোচিত আইফোন ১১ প্রো। এটাই আইফোনের প্রথম প্রো সংস্করণ। অ্যাপলের প্রধান নির্বাহী টিম কুক এটাকে 'সত্যিকার অর্থেই বিশেষ কিছু' বলে আখ্যায়িত করেছেন। একইসঙ্গে আইফোন ১১ ও আইফোন ১১ প্রো ম্যাক্স সংস্করণও উন্মোচন করা হয়েছে। ২০ সেপ্টেম্বর থেকে এসব সংস্করণ বাজারে কিনতে পাওয়া যাবে।




আইফোন ১১ প্রো ও প্রো ম্যাক্স কালচে সবুজ, ছাই, রূপালি ও সোনালি রঙে পাওয়া যাবে।  ধুলো ও পানিরোধী প্রো-তে রয়েছে ৫.৮ ইঞ্চির সুপার রেটিনা এক্সডিআর ডিসপ্লে। প্রো ম্যাক্স এর ডিসপ্লে হবে সাড়ে ছয় ইঞ্চির।
উভয় সংস্করণের পেছনে থাকছে ট্রিপল ক্যামেরা। ক্যামেরা তিনটিতে থাকবে ১২ মেগাপিক্সেলের একটি ওয়াইড লেন্স, একটি আল্ট্রা-ওয়াইড লেন্স এবং একটি ১২ টেলিফটো লেন্স।
নতুন ক্যামেরা ফিচার 'ডিপ ফিউশন' ছবি তোলার বাটনে চাপ দেওয়ার আগেই ৮টি ছবি তুলবে। আর ছবি তোলার বাটনে চাপ দেওয়ার পর সেগুলো একটি ছবিতে পরিণত হওয়ার আগে আরেকটি দীর্ঘ এক্সপোজারের ছবি তুলবে। এতে করে ছবি আরও নিখুঁত হবে।
আইফোন ১১ প্রো এর দাম শুরু হবে ৯৯৯ ডলার এবং প্রো ম্যাক্স এর দাম শুরু হবে ১০৯৯ ডলার থেকে।
এক্সএস ও এক্সআর এর মতোই আইফোন ১১ প্রো ও আইফোন ১১ এর মূল পার্থক্য ওএলইডি স্ক্রিনেই। অ্যাপল বলছে, আইফোন ১১ প্রো হবে তাদের সবচেয়ে ভালো পারফরম্যান্সের আইফোন। এক্সএস-এর চেয়ে চার ঘণ্টা বেশি এবং এক্সএস ম্যাক্সের চেয়ে পাঁচ ঘণ্টা বেশি চার্জ থাকবে।


আইফোন ১১-তে ৬.১ ইঞ্চি লিকুইড রেটিনা ডিসপ্লে রয়েছে। বেশ কয়েকটি রঙে পাওয়া যাবে। নতুন আলট্রা-ওয়াইড ও ডুয়েল-লেন্স ক্যামেরা রয়েছে পেছনে। ফোরকে রেজুলেশনের ভিডিও রেকর্ডিং সাপোর্ট করবে এই লেন্স। যুক্ত করা হয়েছে 'কুইকটেক' ফিচার এর জনপ্রিয় 'পোর্ট্রেট মোড,' কাজ করবে পশু-পাখিদের ক্ষেত্রেও। আগের আইফোনগুলোতে শুধু মানুষের ক্ষেত্রে এই মোড কাজ করতো। কম আলোতে ছবি ও ভিডিওর জন্য নতুন 'নাইট মোড' ফিচার যুক্ত করা হয়েছে। সামনের দিকে থাকা ক্যামেরা দিয়ে প্রথমবারের মতো স্লো মোশন ভিডিও রেকর্ড করা যাবে। এটাকে বলা হচ্ছে 'স্লোফিজ'।
আইফোন ১১-এর ব্যাটারি আইফোন এক্সআর-এর চেয়ে এক ঘণ্টা বেশি চার্জ থাকবে। ফলে এটাই এখন আইফোনের সবচেয়ে দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারি।
অ্যাপল ঘোষণা দিয়েছে আইফোন ১১-কে তারা বাজারের সবচেয়ে দ্রুতগতির স্মার্টফোনে পরিণত করবে।
আইফোন ১১-এর দাম শুরু হবে ৬৯৯ ডলার থেকে। আইফোন এক্সআর-এর চেয়েও এই দাম কম।
১০ সেপ্টেম্বর যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় অনুষ্ঠিত 'অ্যাপল ইভেন্ট'-এ কোম্পানিটি তাদের নতুন পণ্য উন্মোচন করে। এবারই প্রথম ইউটিউবের মাধ্যমে নিজেদের অনুষ্ঠান সম্প্রচার করে অ্যাপল। ফলে ইভেন্টে আমন্ত্রিতরা বাদেও অ্যাপল ভক্তরা অনুষ্ঠানটি দেখতে পেরেছেন। নতুন আইফোন ছাড়াও এতে বেশ কয়েকটি পণ্যের নতুন সংস্করণ উন্মোচন করা হয়েছে।


অ্যাপল ওয়াচের সিরিজ ৫ ঘোষণা করা হয়েছে, পাওয়া যাবে ২০ সেপ্টেম্বর থেকে। এটা দীর্ঘক্ষণ বন্ধ করে রাখতে হবে না। বন্ধ করার পরিবর্তে হাল্কা উজ্জ্বল ডিসপ্লে নিয়ে চলতে থাকবে। ব্যাটারিও চলবে সারাদিন। যুক্ত করা হয়েছে বিল্ট-ইন কম্পাস। কাজ করবে ম্যাপের (মানচিত্র) সঙ্গেও। জিপিএস মডেলের দাম শুরু হবে ৩৯৯ ডলার থেকে। আর মোবাইল নেটওয়ার্ক সাপোর্ট করা ওয়াজের দাম শুরু হবে ৪৯৯ ডলার থেকে। পুরনো মডেলের দাম কমিয়ে ১৯৯ ডলার করা হয়েছে।

বহুল প্রতীক্ষিত নতুন অপারেটিং সিস্টেম আইপ্যাডওএস নিয়ে ৩০ সেপ্টেম্বর বাজারে আসবে নতুন আইপ্যাড। এটার ডিসপ্লে হবে ১০.২ ইঞ্চি। থাকবে এ১০ ফিউশন চিপ ও ফ্লিপ কিবোর্ডের জন্য স্মার্ট কানেক্টর। এটার দাম পড়বে ৩২৯ ডলার।

অ্যাপল টিভি+ উন্মোচিত হবে ১ নভেম্বর। ওই দিন থেকে শতাধিক দেশে এটা পাওয়া যাবে। এটাতেও মাসিক ফি দিয়ে সাবস্ক্রাইবার হওয়া যাবে।
অ্যাপল টিভি+ এর নতুন সিরিয়ালের নাম ঘোষণা করা হয়েছে। এটির নাম 'সি'। এতে অভিনয় করেছেন গেম অব থ্রোনসের অভিনেতা জ্যাসন মামোয়।
অ্যাপল আর্কেড যাত্রা শুরু করবে ১৯ সেপ্টেম্বর। একটি পরিবারের সাবস্ক্রিপশন ফি হবে প্রতিমাসে ৪.৯৯ ডলার। এই সেবায় থাকবে শতাধিক গেম। আইফোন, আইপ্যাড, ম্যাক ও অ্যাপল টিভির ব্যবহারকারীরা সাবস্ক্রিপশনের মাধ্যমে এসব খেলতে পারবেন। অন্য কোনও মোবাইল ডিভাইস থেকে এই সেবা পাওয়া যাবে না।

 

/এএ/

x