মোদিকে চিঠি লেখা ৪৯ বিশিষ্টজনের বিরুদ্ধে দায়ের মামলা ভুয়া: পুলিশ

বিদেশ ডেস্ক ২৩:৩০ , অক্টোবর ০৯ , ২০১৯

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে উদ্দেশ্য করে খোলা চিঠি লেখার পর ভারতের ৪৯ জন বিশিষ্ট নাগরিকের বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলাটিকে ভুয়া আখ্যায়িত করেছে পুলিশ। বুধবার বিহার পুলিশ জানিয়েছে, তদন্তে দেখা গেছে প্রচার পেতে ওই মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা দায়েরকারীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন মুজাফফরপুর জেলা পুলিশের এসএসপি মনোজ কুমার সিনহা।

ভারতে ক্রমাগত গণপিটুনিতে মৃত্যুর ঘটনা, আক্রমণের স্লোগান হিসেবে ‘জয় শ্রীরাম’-এর ব্যবহারসহ একাধিক ‘দুঃখজনক ঘটনা’ নিয়ে উদ্বিগ্ন ৪৯ জন বিশিষ্ট ব্যক্তি গত জুলাইয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রতি খোলা চিঠি লেখেন। এতে স্বাক্ষরকারীদের মধ্যে ছিলেন রামচন্দ্র গুহ, আদুর গোপালকৃষ্ণণ, শ্যাম বেনেগল, আশিস চট্টোপাধ্যায়, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, অপর্ণা সেন, অমিত চৌধুরী, গৌতম ঘোষ, অনুরাগ কাশ্যপ, ড. পার্থ চট্টোপাধ্যায়, অঞ্জন দত্ত, মনি রত্নম, শুভা মুদগলসহ ভারতের খ্যাতনামা ব্যক্তিরা। তাদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগে মামলা দায়ের করেন মুজাফফরপুরের আইনজীবী সুধীর ওঝা। এই মামলা দায়েরের পর গত ৭ আগস্ট প্রধানমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে খোলা চিঠি লেখেন আরও ১৮০ জন বিশিষ্ট নাগরিক। এতে জানতে চাওয়া হয়  প্রধানমন্ত্রীকে লেখা একটি চিঠি কীভাবে রাষ্ট্রদ্রোহী কর্মকাণ্ড হতে পারে?

বুধবার ৪৯ বিশিষ্ট নাগরিকের বিরুদ্ধে করা মামলাটির তদন্ত শেষ হওয়ার কথা জানায় বিহার পুলিশ। মুজাফফরপুর জেলা পুলিশের এসএসপি মনোজ কুমার সিনহা বলেন, ‘আমাদের তদন্তে দেখা গেছে অভিযোগটি মিথ্যা এবং প্রচার পেতে মামলাটি দায়ের করা হয়... ভারতীয় দণ্ডবিধির (আইিপসি) সংশ্লিষ্ট ধারায় মামলা দায়েরকারী ব্যক্তির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে’। তিনি জানান, মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আগামী দুই-এক দিনের মধ্যেই স্থানীয় আদালতে চুড়ান্ত প্রতিবেদন দাখিল করবেন। আর তার আবেদনের ভিত্তিতে মামলা দায়েরকারী ব্যক্তির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

মামলা দায়েরকারী ব্যক্তি  সুধীর ওঝা একজন আইনজীবী। বিশিষ্ট নাগরিক ও প্রখ্যাতদের বিরুদ্ধে জনস্বার্থে মামলা দায়ের করার জন্য পরিচিতি আছে তার। বিহারের উপমুখ্যমন্ত্রী শশী কুমার মোদি সুধীর ওঝাকে নিয়ে টুইট করেছেন। সেখানে তিনি লিখেছেন, সে এক জন ধারাবাহিক মামলা দায়েরকারী আর আমিও তার মামলায় আক্রান্ত হয়েছি... এখন পর্যন্ত সে ৭১৫টি জনস্বার্থ মামলা দায়ের করেছে। এসব মামলার একমাত্র ভিত্তি ছিলো পেপার কাটিং। সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিং, অমিতাভ বচ্চন, হৃত্বিক রোশন ও অন্যান্য বিখ্যাত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে সে।  টুইট বার্তায় তিনি লিখেছেন, এই বিষয়ে (মামলা দায়ের ইস্যুতে) বিজেপি, আরএসএস বা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে লক্ষ্যবস্তু বানানো ভুল হবে।

/জেজে/

x