ঈদের ছুটিতে বেড়ানোর প্যাকেজে আগ্রহ মেলার দর্শনার্থীদের

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট ১১:৫০ , এপ্রিল ২০ , ২০১৯

রিজেন্ট এয়ারওয়েজ ও বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের স্টলআগামী জুনের প্রথম সপ্তাহে ঈদুল ফিতর। ইতোমধ্যে ঈদের ছুটিতে বিদেশে বেড়ানোর পরিকল্পনা সাজাতে শুরু করেছেন অনেকে। তাই ট্রাভেল অ্যান্ড ট্যুরিজম ফেয়ারে (বিটিটিএফ) বিভিন্ন ট্যুর প্যাকেজে দর্শনার্থীদের আগ্রহ দেখা যাচ্ছে। ট্যুর অপারেটররাও বিশেষ ছাড়ে দিচ্ছে বিভিন্ন প্যাকেজ। এজন্য বিপুলসংখ্যক মানুষের সমাগম হচ্ছে।
রাজধানীর আগারগাঁওস্থ বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে (বিআইসিসি) চলছে তিন দিনের এই আন্তর্জাতিক পর্যটন মেলা। এর আয়োজন করেছে ট্যুর অপারেটরস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ (টোয়াব)। গত ১৮ এপ্রিল মেলার উদ্বোধন করেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। 

রিজেন্ট এয়ারওয়েজ মেলায় ২০ শতাংশ পর্যন্ত ছাড় দিচ্ছে। বেসরকারি এই বিমান সংস্থার প্রধান বাণিজ্যিক কর্মকর্তা (সিসিও) হানিফ জাকারিয়া জানান, দোহা ও মাস্কাট ছাড়া সব রুটে বিজনেস ও প্রিমিয়াম ইকোনমি শ্রেণিতে ২০ শতাংশ ছাড়ে টিকিট দেওয়া হচ্ছে। রিজেন্ট হলিডেজ বিভিন্ন গন্তব্যে ভ্রমণের জন্য সাশ্রয়ী মূল্যের আকর্ষণীয় প্যাকেজও দিচ্ছে ।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের অফারের স্ট্যান্ডঅভ্যন্তরীণ সব রুটসহ আন্তর্জাতিক পাঁচটি রুটে টিকিটের ওপর ১৫ শতাংশ ছাড় দিচ্ছে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনস। রাষ্ট্রীয় পতাকাবাহী এই সংস্থা মেলার টাইটেল স্পন্সর।

বিমানের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ ) শাকিল মেরাজ জানান, মেলা চলাকালীন বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসের স্টল থেকে আন্তর্জাতিক অন্যান্য রুটে ৭ শতাংশ ছাড়ে প্রযোজ্য বাজার মূল্যে টিকিট কেনা যাবে। টিকিট কেনার দিন থেকে ছয় মাস অর্থাৎ ১৮০ দিনের মধ্যে ভ্রমণ করতে হবে।



পর্যটন মেলা উপলক্ষে বিমান সব ধরনের করসহ ঢাকা-কাঠমান্ডু-ঢাকা রুটে ১৬ হাজার ৫৮২ টাকা, ঢাকা-ইয়াঙ্গুন-ঢাকা রুটে ২৫ হাজার ৫৪৪ টাকা, ঢাকা-ব্যাংকক-ঢাকা রুটে ১৮ হাজার ৩৩৭, ঢাকা-সিঙ্গাপুর-ঢাকা রুটে ২৬ হাজার ৪০৪ টাকা ও ঢাকা-কুয়ালালামপুর-ঢাকা রুটে ২৪ হাজার ৮৪৬ টাকা ভাড়া নির্ধারণ করেছে বিমান বাংলাদেশ।
ট্রিপজিপ ট্যুরসের স্টলএদিকে ঈদের ছুটিকে কেন্দ্র করে ভ্রমণপ্রেমীদের জন্য বিভিন্ন দেশের ট্যুর প্যাকেজ দিচ্ছে অনলাইন প্ল্যাটফর্ম ট্রিপজিপ ডট ট্যুরস। এর মধ্যে রয়েছে নেপাল, ভুটান, মালদ্বীপ, শ্রীলঙ্কা, ইন্দোনেশিয়া প্রভৃতি।
টোয়াবের পরিচালক মো. তসলিম আমিন শোভন বলেন, ‘এ আয়োজনের মধ্য দিয়ে মানুষের মধ্যে পর্যটন সম্পর্কে আগ্রহ বাড়ছে। দেশি-বিদেশি প্রতিষ্ঠানগুলোর মধ্যে সম্পর্ক সৃষ্টি হচ্ছে। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান ছাড় দেওয়ায় ভ্রমণপিপাসুরা নিজেদের পছন্দমাফিক প্যাকেজের সুবিধা পাচ্ছেন।’
ফ্লাইট এক্সপার্টের স্টলবিটিটিএফে ভারত, নেপাল, ভুটান, কম্বোডিয়া, থাইল্যান্ড, শ্রীলঙ্কা, মালদ্বীপ, ভিয়েতনাম, ফিলিপাইন ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের ট্যুর অপারেটররা অংশ নিচ্ছেন। দর্শনার্থীদের সামনে নিজেদের দেশে ভ্রমণে বিভিন্ন ট্যুর প্যাকেজ তুলে ধরছেন তারা।

আয়োজকরা জানিয়েছেন, বিটিটিএফে দেশি-বিদেশি প্রায় ১৪০টি প্রতিষ্ঠান অংশ নিচ্ছে। চারটি হলে ১৫টি প্যাভিলিয়ন ও ১৬০টি স্টলসহ মোট ২২০টি স্টলে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান তাদের সেবা ও পণ্য উপস্থাপন করছে। শনিবার সকাল ১০টায় শুরু হয়েছে মেলার সমাপনী দিন। দর্শনার্থীদের জন্য রাত ৯টা পর্যন্ত খোলা থাকবে এই আয়োজন। প্রবেশমূল্য ৩০ টাকা।

/সিএ/জেএইচ/

x