দ্য আনাদোলু পোস্ট অস্ট্রিয়ার ‘বণবাদী’ আচরণে ক্ষুব্ধ মুসলিমরা

বিদেশ ডেস্ক ২১:৩১ , জুন ০৯ , ২০১৮

অস্ট্রিয়ায় সাতটি মসজিদ বন্ধ ও ৪০ জন ইমামকে বহিষ্কার করেছে অস্ট্রিয়া। শুক্রবার দেশটির চ্যান্সেলর সেবাস্তিয়ান কার্জ এই ঘোষণা দেন। এক সংবাদ সম্মেলনে ভাইস চ্যান্সেলর হাইঞ্জ ক্রিশ্চিয়ান স্ট্রাচ ও ইউ অ্যাফেয়ার্স মন্ত্রীকে সাথে নিয়ে তিনি বলেন, ‘ইসলামি রাজনীতি’ বিরেুদ্ধে অভিযানের অংশ হিসেবে এই পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। 

কার্জ বলেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রনালয় ও ধর্মীয় বিষয়ক দফতরের অনুসন্ধানের অনুযায়ী এই ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। অনুসন্ধানে দেখা যায় এই সাতটি মসজিদে নিষিদ্ধ কার্যক্রম চলছিল। এরমধ্যে একটি মসজিদ তুর্কি ইসলামিক কালচারাল এসোসিয়েশনের।

অস্ট্রিয়ার চ্যান্সেলর আরও বলেন, ইমামদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তারা বিদেশ থেকে টাকা নেন।

২০১৫ সালে অস্ট্রিয়ার ইউরোপ ও পররাষ্ট্র বিষয়ক মন্ত্রী ছিলেন।  তখন অস্ট্রিয়ায় ‘ল অন ইসলাম’ এর সমর্থণ দিয়েছিলেন তিনি। সেই্ আইন অনুযায়ী অস্ট্রিয়ার মসজিদ ও ইমামদের বিদেশি অর্থায়নের সুযোগ নেই। বিতর্কিত এই আইনটি পাশও হয়ে যায়। কার্জ দাবি তরেন, তিনি ইউরোপীয় ভাবধারায় ইসলামকে রাখতে চান।

নিজের টুইটার অ্যাকাউন্টে কার্জ বলেন, আমরা এই আইন পরিপন্থী যেকোনও কিছুর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিবো ও বৈষম্যহীন সমাজ প্রতিষ্ঠা করবো।

তুর্কি প্রেসিডেন্টের সহযোগী ইব্রাহিত কালিন তার টুইটার অ্যাকউন্টে বলেন, অস্ট্রিয়ার এই আচরণ ‘ইসলামোফোবিক’ বৈষম্য ও বর্ণবাদমূলক আচরণ। তিনি বলেন, ‘এটা মুসলিম সম্প্রদায়ের ওপর আঘাতের চেষ্টা। এতে করে সস্তা রাজনৈতিক অর্জন আসতে পারে।  

 

/এমএইচ/

x