দ্য হিমালয়ান টাইমস কর্মীদের মুখ বন্ধ রাখার আদেশ নেপালের সেনাবাহিনীর

বিদেশ ডেস্ক ২০:৩৪ , এপ্রিল ২০ , ২০১৯

কর্মরত ও অবসরপ্রাপ্ত কর্মীদের গোপন তথ্য ও বাহিনী সংশ্লিষ্ট অভিযানের বিস্তারিত প্রকাশ না করার বিষয়ে নির্দেশনা জারি করেছে নেপালের সেনাবাহিনী। আচরণবিধি-২০১৯ নামে এই নির্দেশনা শুক্রবার প্রকাশ করে সেনাপ্রধান পূর্ণ চন্দ্র থাপা। ওই নির্দেশনায় বলা হয়েছে, সেনা সদস্যরা নেপালের সেনাবাহিনী সংশ্লিষ্ট স্পর্শকাতর তথ্য কর্মরত বা অবসরপ্রাপ্ত অবস্থায় প্রকাশ করতে পারবে না। যদি কোনও সদস্য এই আচরণবিধি পালনে ব্যর্থ হন তাহলে সামরিক আইনে বর্ণিত বিধি অনুযায়ী তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। শনিবার এই খবরকে প্রধান শিরোনাম করেছে দেশটির শীর্ষ সংবাদপত্র দ্য হিমালয়ান।

খবরে বলা হয়েছে, সামরিক বিধিতে বলা হয়েছে, যেসব কর্মী গোপন তথ্য প্রকাশ করবে তাদের দুই থেকে ১০ বছর পর্যন্ত কারাদণ্ড দেওয়া যেতে পারে। তবে ছয় মাসের বেশি সময় আগে অবসরপ্রাপ্ত সেনা সদস্যদের ক্ষেত্রে এই বিধি প্রযোজ্য নয়।

তবে নেপালের সেনাবাহিনীর মুখপাত্র বিজ্ঞান দেব পান্ডে বলেন, তা সত্ত্বেও আমরা অবসরপ্রাপ্ত সব সেনা সদস্যের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পারি কারণ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের গঠিত স্টিয়ারিং কমিটি ২০১৬ সালের মে মাসে এক নির্দেশনা জারি করেছে। ওই নির্দেশনায় বলা হয়েছে শ্রেণীবদ্ধ তথ্য প্রকাশ করে যেসব কর্মরত বা অবসরপ্রাপ্ত সদস্য জাতীয় নিরাপত্তা এবং সার্বভৌমত্বকে হুমকির মুখে ফেললে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

পরে যেসব সাবেক সেনা সদস্য রাজনৈতিক ও নিরাপত্তা ইস্যুতে নিজেদের মতামত রেখে থাকে তাদের বিষয়ে নজরদারি কঠোর করে নেপালের সেনাবাহিনী। সম্প্রতি ব্রিগেডিয়ার জেনারেল প্রেম সিং বসনিয়াতকে ‘বিতর্কিত’ মন্তব্যের জন্য সতর্ক করে দেয় সেনাবাহিনী।

 

/জেজে/

x