তেজপাতার চায়ের তেজ

লাইফস্টাইল ডেস্ক ১৭:৩৯ , আগস্ট ১১ , ২০১৭

 

তেজপাতা চাতেজপাতার ঝাঁঝ বা তেজ সম্পর্কে আমরা সবাই জানি। দারুণ ঘ্রাণে মৌ মৌ করে তেজপাতার ফোড়ন দিয়ে রান্না করা খাবার। বাঙালি রান্নায় তেজপাতার ব্যবহার বহু যুগ ধরে হয়ে আসছে। স্বাদে-গন্ধে মন মাতানো এই পাতাটি খাবারের স্বাদ বাড়ানোর পাশাপাশি ঠিক ঠিক ভাবে কাজে লাগালে জীবন বাঁচাতে এবং আয়ু বৃদ্ধিতেও কাজে আসতে পারে। দিনে দুইবেলা চায়ে তেজপাতা জ্বাল দিয়ে খেলে কী হয় জেনেই নিন

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণে থাকবে: রক্তে উপস্থিত শর্করার মাত্রা কমাতে তেজপাতার কোনও বিকল্প নেই বললেই চলে। শুধু তাই নয়, একাদিক গবেষণায় দেখা গেছে শরীর খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা যাতে বেড়ে না যায় সেদিকেও খেয়াল রাখে এই প্রাকৃতিক উপাদানটি।

উচ্চ রক্তচাপকে নিয়ন্ত্রণে রাখে: সারা শরীরজুড়ে রক্তের সরবরাহে উন্নতি ঘটানোর পাশাপাশি রক্তচাপকে নিয়ন্ত্রণে রাখাতেও তেজপাতার জুড়ি মেলা ভার।

কনস্টিপেশন দূর করে: যাদের কনস্টিপেশন রয়েছে তারা আজ থেকেই তেজপাতা দিয়ে বানানো চা খাওয়া শুরু করুন। দেখবেন কষ্ট কমে যাবে। এক্ষেত্রে এক কাপ করে দিনে দুবার এই বিশেষ চাটি পান করলে দারুন উপকার মিলবে।

ইউরিক অ্যাসিড: দিনে কম করে ২ কাপ তেজপাতা দিয়ে তৈরি চা খেলে শরীরে ইউরিক অ্যাসিডের মাত্রা কমতে শুরু করে।

সর্দি-কাশির প্রকোপ কমায়: সর্দি-কাশিতে নিয়মিত তেজপাতা দিয়ে বানানো চা খেলে জ্বর তো কমেই। সেই সঙ্গে সর্দি-কাশি এবং বুকে কফ জমার মতো সমস্যাও কমতে শুরু করে।

তাহলে আর দেরি কেন, শরীর সুস্থ রাখতে হয়ে যাক তেজপাতা চা।

/এফএএন/

 

x