নাটাই হাতে জমজমাট ‘সাকরাইন’

হাসনাত নাঈম ১৮:১৬ , জানুয়ারি ১৪ , ২০১৮

মাঘ মাসের প্রথমদিন। পৌষসংক্রান্তি পেরিয়ে পুরান ঢাকাবাসী এদিন মেতে ওঠে সাকরাইন উৎসবে। মূলত মাঘের শুরুর দিন এ উৎসবটি পালন করে পুরান ঢাকাবাসী। ভাষাবিজ্ঞানীদের মতে, সংস্কৃত শব্দ ‘সংক্রান্তি’ ঢাকাইয়া অপভ্রংশে সাকরাইন রূপ নিয়েছে। পৌষ ও মাঘ মাসের সন্ধিক্ষণে, পৌষ মাসের শেষদিন সারা ভারতবর্ষে পৌষসংক্রান্তি হিসেবে উদযাপিত হয়।

তবে পুরান ঢাকায় পৌষসংক্রান্তি বা সাকরাইন সর্বজনীন ‘ঢাকাইয়া’ উৎসবের রূপ নিয়েছে। উৎসবপ্রিয় বাংলাদেশের প্রাচীন উৎসবগুলোর মধ্যে এটি অন্যতম একটি উৎসব। যদিও এটি শুধু পুরান ঢাকাবাসীরাই পালন করে থাকে।

ইংরেজি হিসাব মতে, জানুয়ারির ১৪ ও ১৫ তারিখ পৌষ সংক্রান্তি উপলক্ষে পুরান ঢাকার প্রায় প্রতিটি বাড়িতেই থাকছে বিভিন্ন আয়োজন। তৈরি করা হচ্ছে নানা-রকম পিঠাপুলি।

রবিবার দুপুর থেকে  ছেলে-বুড়ো সবার হাতেই নাটাই উঠেছে। গান-বাজনার তালে নাটাই হাতে নিয়ে প্রায় প্রতিটি বাড়ির ছাদ থেকে উড়ছে বাহারি ঘুড়ি। সন্ধ্যায় থাকছে আগুন খেলা, ফানুস ওড়ানো ও আতশবাজি।

এদিন  কুয়াশার কারণে ঘুড়ি বেশ কমই উড়েছে। পুরান ঢাকার আশেপাশের প্রায় প্রতিটি ছাদেই নাটাই হাতে লোক দেখা গেছে।  মোটামুটি দুয়েকটি করে ঘুড়ি উড়ছে। অনেক ছাদে আবার চলছে পিঠা বানানোর আয়োজন।

এ উৎসব দেখতে ও অংশগ্রহণ করতে বিভিন্ন জায়গা থেকে মানুষ আসছে ঘুড়ি হাতে। পুরান ঢাকার লক্ষ্মীবাজার অংশে ‘সাকরাইন’ উৎসব হবে ১৫ জানুয়ারি। এদিনও একইভাবে ঘুড়ি উড়িয়ে, পিঠা তৈরি করে, আতশবাজিতে মুখর হবে সাকরাইন।

ছবি: রায়হান পরাগ।

/এফএএন/এমএনএইচ/

x