দীপিকার ডায়েট চার্ট

নাদিয়া নাহরিন ১৩:৪৫ , মার্চ ১৩ , ২০১৮

‘পদ্মাবত’ ছবির রাজকন্যা কিংবা বর্তমান বলিউডের রূপালী পর্দার অন্যতম সম্রাজ্ঞী দীপিকা পাডুকোন। শুধু সৌন্দর্যই নয়, একইসঙ্গে যথেষ্ট স্বাস্থ্য সচেতন এই অভিনেত্রী। ডায়েট তো করেন ঠিকই, সেই সঙ্গে খেতেও পছন্দ করেন ভীষণ। তবে অবশ্যই সেই খাবার হওয়া চাই যথেষ্ট পুষ্টিগুণসমৃদ্ধ এবং মজাদার। এক সময়কার এই ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় নিজেই বলেন, ‘প্রতিদিনকার এই খাদ্য তালিকাই আমার ফিটনেসের মূল কারণ। যার জন্যে আমি দিনভর কাজ করে যেতে পারি।’

দীপিকা পাড়ুকোন
দীপিকার খাদ্য তালিকা
প্রতিদিন ছয়বেলা আহার সারেন এই অভিনেত্রী। এবং এই খাদ্যতালিকায় রয়েছে প্রচুর পরিমাণে ডায়েট সমৃদ্ধ ফাইবার, প্রোটিন, ওমেগা-৩যুক্ত ফ্যাটি অ্যাসিড, ভিটামিন এবং পর্যাপ্ত খনিজ। নিয়মিত এই আহারে দীপিকা যথেষ্ট সচেতন। যত কাজই থাকুক, অন্তত প্রতিদিন ঠিক সময়ে খাবারটা সেরে নেন। কিন্তু কাজের চাপ তো হরদম থাকছেই, তখন তিনি কি করেন? দীপিকার নিজ মুখেই স্বীকারোক্তি, ‘হয়তো কখনও কাজের চাপে খাবার সময় পাই না। সেই সময়েও কিন্তু আমি ফলের জুস, নারকেল পানি কিংবা প্রচুর পানি পান করি। কেননা এই পানীয় পানিশূন্যতা রোধে যথেষ্ট উপকারী।’
আর সেই সঙ্গে তার ডায়েটের তালিকা তো রয়েছেই।
সূর্য ওঠার সঙ্গেই এই অভিনেত্রীর ব্যস্ততা শুরু হয়। আর দিনের শুরুটা করেন হালকা গরম পানির সঙ্গে সামান্য মধু দিয়ে। নাস্তা সারেন দুখানা ডিমের সাদা অংশ, দুটো আমন্ড বাদাম এবং এক কাপ লো-ফ্যাটযুক্ত দুধ দিয়ে।
লাঞ্চের দুই ঘণ্টা আগে খান ফল। লাঞ্চে তার প্রিয় খাবার যথেষ্ট পরিমাণে সবজি এবং মাছ। বিকেল কিংবা সন্ধ্যাটার খাবার তালিকায় থাকে কফি এবং আমন্ড বাদাম। অতঃপর রাতের খাবার। সালাদ এ সময় থাকা চাই। আর সঙ্গে সবজি, চা। আবার কখনও যুক্ত হয় ডার্ক চকোলেট।


চাই শরীরচর্চা
খাদ্য তালিকার পাশাপাশি প্রতিদিন দীর্ঘ একটা সময় তিনি ব্যয় করেন শারীরিক ব্যায়ামের পিছনে। সেই সঙ্গে ইয়োগা, মেডিটেশন, কিছু সময় খেলাধুলাতেও ব্যয় করেন। এছাড়া প্রতিদিনের অনুশীলনের পাশাপাশি সকাল এবং সন্ধ্যায় ৩০ মিনিট হাঁটার জন্য বরাদ্দ রাখেন তিনি।
একইসঙ্গে মেনে চলেন বেশ কিছু বিষয়

  • এক সঙ্গে অতিরিক্ত খাবার না খাওয়া। তাই দু ঘণ্টা অন্তর তিনি খাবার সেরে নেন ঝটপট। এটি হজমশক্তি বৃদ্ধিতেও সহায়ক।
  • যত কাজই থাকুক সব সময় চেষ্টা করেন সঠিক সময়ে খাবার খাওয়ার।
  • খাদ্য তালিকায় প্রচুর পরিমাণে সবজি এবং ফল থাকা চাই
  • সন্ধ্যা ৭টার পর রাইস বা কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবার একদমই এড়িয়ে চলেন।

তথ্য: স্টাইল ক্রেজ

/এনএ/

x