‘যারা জাককানইবিকে অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করছে, তাদের ছাড় দেওয়া হবে না’

জাককানইবি প্রতিনিধি ২১:৪৩ , মে ১৭ , ২০১৮

সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখছেন এএইচএম মোস্তাফিজুর রহমান (ছবি- প্রতিনিধি)

জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়কে (জাককানইবি) অস্থিতিশীল করার চেষ্টা চলছে দাবি করে উপাচার্য ড. এএইচএম মোস্তাফিজুর রহমান হুঁশিয়ারি দিয়েছেন, ‘যারা এ প্রতিষ্ঠানকে (জাককানইবি) অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করছে, তাদের ছাড় দেওয়া হবে না।’

বৃহস্পতিবার (১৭ মে) সকালে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ হুঁশিয়ারি দেন। উপাচার্য ড. এএইচএম মোস্তাফিজুর রহমানের সভাপতিত্বে সংবাদ সম্মেলন সঞ্চালনা করেন রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) ড. মো. হুমায়ুন কবীর। এ ছাড়া, উপস্থিত ছিলেন– বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভাগীয় প্রধানসহ অনেকে।

জাককানইবি বর্তমানে গভীর সংকটে নিমজ্জিত মন্তব্য করে ড. এএইচএম মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘একটি মহল বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ অস্থিতিশীল করার চক্রান্ত করছে। একদিকের ঘটনা অন্যদিকে প্রবাহিত করার চেষ্টা চলছে। যারা এ প্রতিষ্ঠানকে (জাককানইবি) অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করছে, তাদের ছাড় দেওয়া হবে না।’

গত ১৩ এপ্রিল বিকাল ৪টার দিকে ময়মনসিংহের চুরখাই এলাকায় জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (জাককানইবি) শিক্ষার্থীদের বহন করা একটি বাস ভাঙচুর করে দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ ৩০ জন আহত হন। বাস ভাঙচুরের ঘটনা তদন্তে কমিটি হয়েছে জানিয়ে ড. এএইচএম মোস্তাফিজুর রহমান আরও বলেন, ‘কমিটি তদন্ত কাজ শুরু করেছে। আগামী সাত কার্যদিবসের মধ্যে এ কমিটি তাদের প্রতিবেদন জমা দেবে। এরপর প্রকৃত অপরাধীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

১৩ এপ্রিলের বাস ভাঙচুরের ঘটনায় ১৪ এপ্রিল দুপুরে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়ক অবরোধ করেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। এসময় সড়ক অবরোধের সংবাদ সংগ্রহ করতে যাওয়া সাংবাদিকদের সঙ্গে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ‘ভুল বোঝাবুঝি’র ঘটনা ঘটে, যা নিয়ে পরবর্তী সময়ে একটি জাতীয় দৈনিকের একজন জেলা প্রতিনিধি মানববন্ধন করে শিক্ষক-শিক্ষার্থীদের ‘গালিগালাজ’ করেন। গালাগালের ঘটনার নিন্দা জানিয়ে ড. এএইচএম মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘আমার শিক্ষার্থীরা শৃঙ্খলাবিরোধী কাজে জড়াবে না। এজন্য আমরা বিশেষভাবে নজর রাখছি।’

গত ১৫ মে রাতে মারধরের অভিযোগে ২০-২৫ জন শিক্ষার্থীকে আসামি করে কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন এটিএন বাংলা টেলিভিশনের প্রতিনিধি শাহ আলম উজ্জল। এ মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে ‘ভুল বোঝাবুঝি’ ঘটনা ভুলে গিয়ে ফের পারস্পরিক সহযোগিতামূলক মনোভাব গড়ে তোলার জন্য শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও সাংবাদিকদের প্রতি আহ্বান জানান ড. এএইচএম মোস্তাফিজুর রহমান।

আরও পড়ুন-

 জাককানইবি’র বাস ভাঙচুর, শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ আহত ৩০ জন

জাককানইবি’র বাস ভাঙচুর ও শিক্ষার্থীদের ওপর হামলার প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ

৩ ঘণ্টা পর জাককানইবি’র শিক্ষার্থীদের মহাসড়ক অবরোধ প্রত্যাহার

সাংবাদিকদের ওপর হামলা ও মারধরের ঘটনায় মামলা

/এমএ/

x