Vision  ad on bangla Tribune

মুসা ইব্রাহীমকে উদ্ধারের মিশন সফল

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট ০৮:১৮ , জুন ১৯ , ২০১৭

মুসা ইব্রাহীমএভারেস্ট জয়ী মুসা ইব্রাহীম ও তার সহআরোহীদের উদ্ধার করা হয়েছে। সোমবার (১৯ জুন) ভোর সোয়া ৬টায় দ্বিতীয়বারের মতো হেলিকপ্টার পাঠিয়ে ওশেনিয়ার সর্বোচ্চ পর্বত থেকে তাদের উদ্ধার কাজ সফল হয়। বাংলা ট্রিবিউনকে সুখবরটি দিয়েছেন মুসার স্ত্রী উম্মে শরাবন তহুরা।
পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ শাহরিয়ার আলমও ফেসবুকে এ প্রসঙ্গে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। তিনি হেলিকপ্টার থেকে মুসা ও তার সঙ্গীদের পাঠানো বার্তা দিয়েছেন। তারা লিখেছেন, ‘অনেক গল্প হয়তো বলা হবে না। এগুলোর কোনও হদিসও থাকবে না। কিন্তু আমাদের হৃদয়ে চিরকাল তা রয়ে যাবে। কার্সটেঞ্জ পর্বতের রোমাঞ্চকর গল্প।’
মুসা ও তার সতীর্থদের বার্তার পর পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী লিখেছেন, ‘তাদের আর মিনিট দশেক লাগবে সমতলে পৌঁছাতে। সবাই ভালো থাকুন।’
গত ১৭ জুন সন্ধ্যা থেকে জানা যায়, বাংলাদেশের অন্যতম পর্বতারোহী মুসা ইব্রাহীম ওশেনিয়ার সর্বোচ্চ পর্বতে দুই সহআরোহীকে নিয়ে আটকে পড়েছেন। রবিবার (১৮ জুন) সন্ধ্যায় মুসার সহযাত্রী ভারতীয় নাগরিক সত্যরূপ সিদ্ধান্তের স্যাটেলাইট ফোন থেকে পাওয়া বার্তা বলছিল, তারা পরিত্যক্ত কিছু খাবারের সন্ধান পেয়েছেন। সেগুলোই তাদের অমৃতসমান। দুপুরে পাঠানো এক বার্তায় উদ্ধার প্রচেষ্টার জন্য দূতাবাসকে ধন্যবাদও জানান মুসা।
ওশেনিয়া (পাপুয়া নিউগিনি, ইন্দোনেশিয়া) মহাদেশের সর্বোচ্চ পর্বত মাউন্ট কার্সটেঞ্জ পিরামিড জয় করার জন্য বাংলাদেশ ও ভারতের তিন সদস্যের একটি দলের নেতৃত্ব দেন মুসা ইব্রাহীম। পর্বতটি জয় করতে গিয়ে দলটি প্রতিকূল আবহাওয়ার মুখোমুখি হয়ে বেজ ক্যাম্পে আটকা পড়েছিল তিন দিন ধরে।

গত ১৭ জুন রাতে মুসা ইব্রাহীমসহ অন্যদের আটকে পড়ার খবর বাংলা ট্রিবিউনকে নিশ্চিত করেন মুসার স্ত্রী। তিনি বলেন, ‘মুসার সঙ্গে সত্যরূপ সিদ্ধান্ত ও নন্দিতা আছেন। তারা সবাই বেজ ক্যাম্পে আটকে পড়েছেন এবং তাদের কাছে খাবার নেই।’

আগের একটি ফেসবুক স্ট্যাটাসে আসিয়ান দফতর, বাংলাদেশি দূতাবাস ও ভারতীয় দূতাবাস মুসা ইব্রাহীম ও তার দলকে উদ্ধারের কার্যক্রম তদারকি করছে বলে উল্লেখ করেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী।

ওশেনিয়া মহাদেশের সর্বোচ্চ পর্বত মাউন্ট কার্সটেঞ্জ পিরামিড জয় করার জন্য গত ২৯ মে ইন্দোনেশিয়া থেকে যাত্রা শুরু করেন মুসা। বালিতে তার সঙ্গে যোগ দেন সত্যরূপ ও নন্দিতা। এ অভিযানের আনুষ্ঠানিক নাম ‘বাংলাদেশ-ইন্ডিয়া ফ্রেন্ডশিপ এক্সপেডিশন টু মাউন্ট কার্সটেঞ্জ পিরামিড’।

উল্লেখ্য, মুসা ইব্রাহীম প্রথম বাংলাদেশি হিসেবে মাউন্ট এভারেস্ট জয় করেছেন। তিনি ২০১০ সালের ২৩ মে বাংলাদেশ সময় ভোর ৫টা ৫ মিনিটে এভারেস্ট শৃঙ্গ জয় করেন। ২০১১ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর আফ্রিকা মহাদেশের সর্বোচ্চ পর্বত কিলিমাঞ্জারোর চূড়া জয় করেন মুসা। এই অভিযানে তার সঙ্গী ছিলেন নিয়াজ মোরশেদ পাটওয়ারী ও এম এ সাত্তার। তবে ১৯ হাজার ৩৪০ ফুট উচ্চতার কিলিমাঞ্জারো পর্বতের চূড়ায় বাংলাদেশের পতাকা উড়িয়েছেন কেবল মুসা ও নিয়াজ।

/ইউআই/জেএইচ/

Advertisement

Advertisement

Pran-RFL ad on bangla Tribune x