ফোরজি লাইসেন্স নিয়ে বিটিআরসি’র কার্যক্রমে বাধা নেই

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট ১৩:৩৫ , জানুয়ারি ১৪ , ২০১৮

সুপ্রিম কোর্টফোরজি লাইসেন্সিং গাইডলাইন এবং তরঙ্গ নিলামে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) কার্যক্রম পরিচালনায় আর কোনও বাধা নেই। এই কার্যক্রম স্থগিত রাখার নির্দেশ নিয়ে হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করেছিলেন চেম্বার আদালত। আজ রবিবার (১৪ জানুয়ারি) চেম্বার আদালতের সেই আদেশই বহাল রেখেছেন আপিল বিভাগ। এর ফলে বিটিআরসি'র গাইডলাইন এবং তরঙ্গ নিলাম সংক্রান্ত বিজ্ঞপ্তির কার্যক্রম পরিচালনায় আর কোনও বাধা নেই।

রবিবার দায়িত্বরত প্রধান বিচারপতি মো. আবদুল ওয়াহহাব মিঞার নেতৃত্বাধীন পাঁচ সদস্যের আপিল বেঞ্চ এই আদেশ দেন। আদালতে বিটিআরসি'র পক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম। অন্যদিকে বাংলালায়নের পক্ষে শুনানি করেন ব্যারিস্টার রোকন উদ্দিন মাহমুদ।

এর আগে ১১ জানুয়ারি বৃহস্পতিবার সকালে ফোরজি লাইসেন্সিং গাইডলাইন এবং তরঙ্গ নিলামের জন্য আবেদন আহ্বান করে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) জারি করা বিজ্ঞপ্তি স্থগিত রাখার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে ওই বিজ্ঞপ্তি কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে চেয়ে রুল জারি করেন। এক রিট আবেদনের শুনানি নিয়ে বিচারপতি নাইমা হায়দার ও বিচারপতি জাফর আহমদের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের দ্বৈত বেঞ্চ এই আদেশ দেন। এর আগে এ সংক্রান্ত একটি রিট দায়ের করে বাংলালায়ন কমিউনিকেশন্স লিমিটেড।

হাইকোর্টের আদেশে বলা হয়,  সেলুলার  মোবাইল ফোন সার্ভিসেস নামে যে নীতিমালা করা হয় সেটি ২০০৮ সালের ব্রডব্যান্ড গাইডলাইন্সের সঙ্গে সাংঘর্ষিক। এ কারণে স্থগিতাদেশ দিয়ে রুল জারি করেছেন।

কিন্তু হাইকোর্টের এই আদেশের বিরুদ্ধে চেম্বার আদালতে আবেদন করা হয়। পরে চেম্বার আদালত হাইকোর্টের স্থগিতাদেশ স্থগিত করেন। একইসঙ্গে আজ রবিবার এ বিষয়ে আপিল বিভাগের পূর্ণাঙ্গ বেঞ্চে শুনানির দিন ধার্য করেন। আজ আপিল বিভাগ পূর্ণাঙ্গ শুনানি নিয়ে চেম্বার আদালতের আদেশ বহাল রাখার নির্দেশ দেন।

এর আগে গত ৪ ডিসেম্বর বিশেষ কমিশন সভায় দুই গাইডলাইন প্রকাশ ও আবেদন আহ্বানের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এরপর একইদিনে বিটিআরসির ওয়েবসাইটে এ নিয়ে একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। ওই বিজ্ঞপ্তি অনুসারে ১৪ জানুয়ারি পর্যন্ত আবেদন গ্রহণের পর ২৫ জানুয়ারি যোগ্য আবেদনকারীদের তালিকা প্রকাশ করবে বিটিআরসি। এরপর ২৯ জানুয়ারি নিলামের আলোচনা, ৫ ফেব্রুয়ারির মধ্যে বিড আর্নেস্ট মানি প্রদান, ৭ ফেব্রুয়ারি নিলামের চিঠি প্রদান, ১২ ফেব্রুয়ারি মক নিলাম, ১৩ ফেব্রুয়ারি নিলাম এবং ১৪ ফেব্রুয়ারি নিলামে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে বিজয়ীর নাম ঘোষণা দিন ধার্য রাখা হয়।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ২৯ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই দুই গাইডলাইনের অনুমোদন দেন।

আরও পড়ুন- 

ফোরজি লাইসেন্স নিয়ে বিটিআরসি’র বিজ্ঞপ্তি স্থগিত
ফোরজি তরঙ্গ নিলাম: হাইকোর্টের আদেশ রবিবার পর্যন্ত স্থগিত

 

 

/বিআই/এফএস/

x