শিক্ষামন্ত্রীর অপসারণ চেয়ে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীকে আইনি নোটিশ

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট ১৩:৫৪ , ফেব্রুয়ারি ১৪ , ২০১৮

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ (ফাইল ফটো)

প্রাথমিক সমাপনী, জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি), এসএসসি ও এইচএসসিসহ সব পাবলিক পরীক্ষায় প্রশ্নফাঁস বন্ধে শিক্ষামন্ত্রী ব্যর্থ হওয়ায় ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তার পদত্যাগ চেয়ে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী বরাবর আইনি নোটিশ পাঠিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের এক আইনজীবী।

বুধবার সকালে রেজিস্ট্রি ডাকযোগে নোটিশটি পাঠান আইনজীবী ড. ইউনুছ আলী আকন্দ। পরে নোটিশ পাঠানোর বিষয়টি তিনি সাংবাদিকদের জানান।

নোটিশে বলা হয়, প্রাথমিক সমাপনী, জেএসসি, এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষাসহ সব পাবলিক পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁস বন্ধে শিক্ষামন্ত্রী ব্যর্থ। সুতরাং তার ওই পদে থাকার অধিকার নেই। তার স্থলে সংবিধানের ৫৬(২) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী যিনি সংসদ সদস্য নন এমন একজন শিক্ষায় অসামান্য দক্ষ ও উচ্চশিক্ষিত নাগরিককে শিক্ষামন্ত্রী করতে এই নোটিশ জারি করছি।

এতে আরও বলা হয়, উচ্চশিক্ষার নামেও  চলছে প্রাইভেট বিশ্ববিদ্যালয় নাম দিয়ে সার্টিফিকেট বাণিজ্য। সেখানে লেখাপড়ার প্রয়োজন নেই। দেখার কেউ নেই। অথচ শিক্ষামন্ত্রী প্রশ্নপত্র ফাঁসের ব্যাপারে শুধুই দোষ চাপাচ্ছেন কোচিং সেন্টারকে। কোচিং সেন্টারতো প্রশ্ন ছাপায় না বা সংরক্ষণ কিংবা সরবরাহ করে না। সবকিছুই করছে সরকারের কর্মকর্তারা। অথচ তাদের বিরুদ্ধে কিছুই করা হচ্ছে না। 

অতএব, সংবিধানের ৫৮(১)(ক)(গ)(২) অনুচ্ছেদ অনুযায়ী বর্তমান শিক্ষামন্ত্রী পদত্যাগ করবেন অথবা প্রধানমন্ত্রী ওই শিক্ষামন্ত্রীকে পদত্যাগ করতে অনুরোধ করবেন।

তবে ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এই নোটিশের বিষয়ে কোনও কার্যকরী ব্যবস্থা গ্রহণ না করলে সংবিধানের ১০২ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হবে বলে জানিয়েছেন আইনজীবী ইউনুছ আলী আকন্দ।

 

 

 

 

/বিআই/এসটি/

x