মধুচন্দ্রিমার যাত্রা রূপ নিলো অনন্ত যাত্রায়!

সাদ্দিফ অভি ০২:১৯ , মার্চ ১৪ , ২০১৮



বিয়ের দিন আঁখি মনি ও মিনহাজ বিন নাসিরবিয়ের ১১ দিনের মাথায় হুট করে সিদ্ধান্ত নিলেন মধুচন্দ্রিমায় মালয়েশিয়া নয়, নেপাল যাবেন আঁখি মনি ও মিনহাজ বিন নাসির দম্পতি। তাই সবার কাছ থেকে বিদায় নিয়ে যাত্রা করেন হিমালয়ের দেশ নেপালের উদ্দেশে। শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে ইউএস বাংলার বিএস ২১১ ফ্লাইটে শুরু হয় তাদের আনন্দযাত্রা। কিন্তু এই যাত্রাই রূপ নিলো তাদের অনন্ত যাত্রায়!

সোমবার বিধ্বস্ত হওয়া ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের বিমানে মৃত ২৬ বাংলাদেশিদের মধ্যে আছেন এই নব দম্পতি।
ঢাকার মহাখালীতে থাকতেন আঁখি মনি ও মিনহাজ বিন নাসির। প্রেম করেছেন চার বছর; এরপর পারিবারিকভাবেই বিয়ের বন্ধনে আবদ্ধ হন গত ২ মার্চ। মালয়েশিয়ায় মধুচন্দ্রিমায় যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তারা। কিন্তু হঠাৎ করেই সিদ্ধান্ত বদলে নেপাল যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন বলে জানান আঁখি মনির বন্ধু মৈত্রী আহসান। তিনি বাংলা ট্রিবিউনকে জানান, চার বছর প্রেম করে বিয়ে হয় তাদের। এই বিয়ে নিয়েও অনেক ঝামেলা হয়। যাহোক সবকিছুর অবসান হয়ে বিয়েটা হয়। ওর জামাই খুব খুশি ছিল।ওদের আসলে মালয়েশিয়া যাওয়ার কথা ছিল। কিন্তু হুট করেই ওর জামাই নেপালে যাওয়ার প্ল্যান করেন।

তিনি আরও বলেন, ‘ওরা এক ভাই এক বোন,আঁখি বড়। ওর পড়া লেখা শেষ, ওকে নিয়েই সবকিছু ছিল। ওর মা আর ওর গায়ের রঙ শ্যামলা ছিল বলে আঁখির খুব কষ্ট ছিল। আর সেই মেয়ে আজকে আগুনে পুড়ে কয়লা! আগুনের সামনে জেতে চাইতো না আরও কালো হয়ে যাবে বলে! অনেক ঢং করে কথা বলতো, আর খুব হাসিখুশি ছিল। খুব জোরে জোরে হাসতো সে। আর কোনও কথায় কোনোদিন রাগ করতো না, সবকিছুই খুব সহজে নিতো।

/এইচআই/

/এইচআই/

x