পরিবর্তন আসছে যেসব সংসদীয় আসনে

এমরান হোসাইন শেখ ২০:৪২ , মার্চ ১৪ , ২০১৮

 

নির্বাচন কমিশনএকাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য ১৬ জেলার ৩৮টি সংসদীয় আসনের সীমানা পরিবর্তন এনে পুনর্বিন্যাস করে খসড়া করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। এরমধ্যে রংপুর বিভাগে সাতটি, রাজশাহী বিভাগে দু’টি, খুলনা বিভাগে চারটি, ময়মনসিংহ বিভাগে দু’টি, ঢাকা বিভাগে নয়টি, সিলেট বিভাগে দু’টি ও চট্টগ্রাম বিভাগে ১০টি আসনে পরিবর্তন এসেছে। বুধবার এই তালিকা বিজ্ঞপ্তি আকারে প্রকাশ করা হয়েছে। কমিশন আগামী ১ এপ্রিল এ তালিকা নিয়ে দাবি-আপত্তি গ্রহণ করবে। পরে এগুলো নিষ্পত্তি করে ৩০ এপ্রিল সংসদীয় আসনের  চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করবে।

প্রস্তাবিত ৩৮টি আসনে উপজেলার অখণ্ডতা, প্রশাসনিক এলাকা যোগ ও বিলুপ্ত ছিটমহল যোগ করা হয়েছে। এতে কোনও জেলার আসন সংখ্যা বড়েনি বা কমেনি। হেরফের হয়নি ঢাকা মহানগরীর আসনেও। তবে, ঢাকা ৭ আসনে নতুন করে কয়েকটি ওয়ার্ড যুক্ত হয়েছে।আর ঢাকা ১৪ আসনে যুক্ত থাকা সাভারের একটি ইউনিয়ন বাদ দেওয়া হয়েছে। আগের খণ্ডিত কেরানীগঞ্জ উপজেলা ও অখণ্ডিত হয়ে একটি আসনের সঙ্গে যুক্ত হয়েছে। 

খসড়া সংসদীয় আসনে নীলফামারী ৩ ও ৪ আসনে পরিবর্তন এসেছে। বর্তমানে থাকা জলঢাকা উপজেলা ও কিশোরগঞ্জ উপজেলার রণচণ্ডি, বড় ভিটা ও পুটিমারী ইউনিয়ন নিয়ে নীলফামারী ৩ আসনে অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। এদিকে, কিশোরগঞ্জ উপজেলার রণচণ্ডি, বড় ভিটা ও পুটিমারী ইউনিয়ন বাদ দিয়ে বাকি ইউনিয়ন ও সৈয়দপুর উপজেলা নীলফামারী-৪ আসনে অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। খসড়ায় নীলফামারী ৩ আসনে কেবল জলঢাকা উপজেলাকে রাখা হয়েছে এবং কিশোরগঞ্জ পুরো উপজেলা ও সৈয়দপুর উপজেলা ৪ আসনের অন্তর্ভুক্ত হয়েছে।

বর্তমানে গঙ্গাচড়া উপজেলাকে নিয়ে গঠিত রংপুর-১ আসনে পরিবর্তন এনে এই উপজেলার পাশাপাশি রংপুর সিটি করপোরশেনের ১ থেকে ৮ পর্যন্ত ওয়ার্ডকে যুক্ত করা হয়েছে। একইভাবে রংপুর-৩ আসনের বর্তমানের সদর উপজেলা ও সিটি করপোরেশনভুক্ত সংশ্লিষ্ট এলাকার স্থলে সদর উপজেলা এবং ১ থেকে ৮ পর্যন্ত ওয়ার্ড বাদে সিটির বাকি ওয়ার্ড যুক্ত করা হয়েছে। রংপুর-৪ আসনে বিদ্যমান সিটি করপোরেশনভুক্ত এলাকা বাদ দিয়ে পীরগাছা ও কাউনিয়া উপজেলা নিয়ে গঠনের প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে।

কুড়িগ্রাম-৩ আসনটি বর্তমানে উলিপুর ও চিলমারী উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত হয়েছে। এই উপজেলা দু’টির কিছু ইউপি যুক্ত রয়েছে কুড়িগ্রাম-৪ আসনে। খসড়া আসনে কেবল উলিপুর উপজেলা নিয়ে কুড়িগ্রাম-৩ এবং রৌমারী, রাজিবপুর চিলমারী উপজেলা নিয়ে কুড়িগ্রাম-৪ আসন গঠনের কথা বলা হয়েছে।

বিদ্যমান আসন সীমানায় পাবনা-১ আসনে হয়েছে সাথিয়া উপজেলা ও বেড়ার কয়েকটি ইউনিয়ন নিয়ে। একইভাবে পাবনা-২ আসনে রয়েছে সুজানগর ও বেড়ার বাকি ইউনিয়নগুলো। খসড়া সংসদীয় আসনে একক সাঁথিয়া উপজেলা নিয়ে নিয়ে পাবনা-১ এবং সুজানগর ও বেড়া উপজেলা নিয়ে পাবনা-২ আসন গঠনের কথা বলা হয়েছে।

সীমানায় শ্রীপুর ও সদর উপজেলার কয়েকটি ইউনিয়ন নিয়ে মাগুরা-১ এবং সদরের বাকি ইউপি ও মহম্মদপুর এবং শালিখা উপজেলা নিয়ে মাগুরা-২ আসন গঠিত রয়েছে। নতুন সীমানায় মাগুরা-১ এর সাথে শ্রীপুর ও সদর উপজেলার পুরো অংশ যুক্ত করা হয়েছে। একইসঙ্গে মাগুরা-২ থেকে সদরের ওই ইউনিয়নগুলো বাদ দিয়ে মহম্মদপুর ও শলিখা উপজেলাকে রাখা হয়েছে।

খুলনা-৩ আসনে পরিবর্তন এনে সিটি করপোরেশনের ১ থেকে ১৫ ওয়ার্ড এবং দিঘলিয়া উপজেলার আড়ংঘাটা ও যোগীপোল ইউনিয়ন এবং খুলনা-৪ আসনে উপরোক্ত দুই ইউপি বাদে দিঘলিয়া উপজেলা, রূপসা ও তেরখাদা উপজেলা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। 

খসড়া সংসদীয় আসনে সাতক্ষিরা-৩ আসন থেকে কালিগঞ্জ উপজেলার ইউনিয়নগুলো বাদ দিয়ে কেবল আশাশুনি ও দেবহাটা উপজেলাকে রাখা হয়েছে। আর সাতক্ষিরা-৪ আসনে সম্পূর্ণ কালীগঞ্জ উপজেলা ও শ্যামনগর উপজেলাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

জামালপুর-৪ আসনে সদর উপজেলার বিদ্যমান দু’টি ইউনিয়ন বাদ দিয়ে কেবল সরিষাবাড়ী উপজেলা এবং জামালপুর-৫ আসনের পুরো সদর উপজেলা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

ঢাকা-২ আসনে বিদ্যমান কেরানীগঞ্জ উপজেলার আংশিক, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের কয়েকটি ওয়ার্ড ও সাভার উপজেলার অংশ বিশেষের স্থলে গোটা কেরানীগঞ্জ উপজেলাকে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। একইভাবে ঢাকা-৩ আসনে সাভার পৌরসভা এবং সদর, বিরুলিয়া, তেঁতুলঝোড়া, বনগাঁও, ভাকুর্তা ও আমিনবাজার ইউনিয়ন; ঢাকা-৭ আসনে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ২৩ থেকে ৩৩ এবং ৩৫, ৩৬, ৫৫, ৫৬ ও ৫৭ নম্বর ওয়ার্ড, ঢাকা-১৪ আসনে সভার উপজেলার কাউন্দিয়া ইউনিয়ন বাদ দিয়ে কেবল উত্তর সিটি করপোরেশনের ৭ থেকে ১২ পর্যন্ত ওয়ার্ড; ঢাকা-১৯ আসনে সাভার উপজেলার আশুলিয়া থানার অন্তর্গত ৫টি ইউনিয়ন ও সাভার ক্যান্টনমেন্ট এলাকা অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। 

নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনে আলীনগর ও গোগনগর ইউপি বাদে সদর উপজেলা এবং সিটি করপোরেশনর্ভুক্ত ১ থেকে ১০ পর্যন্ত ওয়ার্ড এবং নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনে সদর ‍উপজেলার উপরোক্ত দু’টি ইউনিয়ন ও বন্দর উপজেলা এবং সিটি করপোরেশনের ১১ থেকে ২৭ পর্যন্ত ওয়ার্ড অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

শরীয়তপুর-২ আসনে ভেদরগঞ্জ ও নড়িয়া উপজেলা এবং শরীয়তপুর-৩ আসনে ডামুড্যা ও গোসাইরগাট উপজেলা; মৌলভীবাজার-২ আসনে কুলাউড়া উপজেলা এবং মৌলভীবাজার-৪ আসনে শ্রীমঙ্গল ও কমলগঞ্জ উপজেলা; ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৫ আসনে নবীগঞ্জ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৬ আসনে বাঞ্ছারামপুর ‍উপজেলা, কুমিল্লা-১ আসনে দাউদকান্দি ও তিতাস উপজেলা, কুমিল্লা-২ আসনে হোমনা ও মেঘনা উপজেলা, কুমিল্লা-৬ আসনে আদর্শ সদর উপজেলা, সিটি করপোরেশন ও কুমিল্লা ক্যান্টনমেন্ট এলাকা এবং কুমিল্লা-১০ আসনে সদর দক্ষিণ, লালমাই ও লাঙ্গলকোর্ট উপজেলা; নোয়াখালী-৪ আসনে সুবর্ণচর ও সদর উপজেলা, নোয়াখালী-৫ আসনে কোম্পানীগঞ্জ ও কবিরহাট উপজেলা এবং চট্টগ্রাম ৭ আসনে রাংগুনিয়া ও চট্টগ্রাম-৮ আসনে বোয়ালখালী উপজেলা ও সিটি করপোরেশনের ৩ থেকে ৭ পর্যন্ত ওয়ার্ড অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে।

/এমএনএইচ/

x