ব্যাংক থেকে লোন নিয়ে আমার বাড়ি-গাড়ি করা হয়েছে: হুইপ আতিক

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট ১৫:১৩ , এপ্রিল ১৭ , ২০১৮

আতিউর রহমান আতিকঅবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে জাতীয় সংসদের হুইপ ও শেরপুর-১ আসনের সংসদ সদস্য আতিউর রহমান আতিককে মঙ্গলবার (১৭ এপ্রিল)জিজ্ঞাসাবাদ করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। এ জিজ্ঞাসাবাদ শেষে দুদক কার্যালয় থেকে বের হয়ে তিনি বলেন,  ‘ব্যাংক থেকে লোনের মাধ্যমে টাকা নিয়ে আমার বাড়ি-গাড়ি করা হয়েছে। আমি স্বচ্ছ, সততা ও ন্যায়নিষ্ঠভাবে রাজনীতি করে এসেছি, এটা প্রমাণিত। ভবিষ্যতেও সেটার ধারাবাহিকতা থাকবে।'

তিনি বলেন, ‘আমাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। আমি সেগুলোর যথাযথ জবাব দিয়েছি। যারা অভিযোগ করেছে তাদেরকে এগুলো প্রমাণ করতে হবে। এসব অভিযোগের সঙ্গে আমার কোনও সম্পর্ক বা সম্পৃক্ততা নেই।’

তিনি আরও বলেন, ‘কে কী বলেছে সেটা দেখার বিষয় না। আমি গ্রাম থেকে উঠে এসেছি, রাজনৈতিকভাবে আমাকে হেয় করার জন্য এসব অভিযোগ করা হচ্ছে। এসব অভিযোগ মিথ্যা, বানোয়াট এবং উদ্দেশ্যমূলক।’

জিজ্ঞাসাবাদ শেষে দুদকের সচিব ড.শামসুল আরেফিন বলেন, ‘কাউকে হয়রানি করার জন্য দুদক তদন্ত করে না। তার বিরুদ্ধে এসব অভিযোগ তিন বছর আগে আনা হয়েছিল। হাইকোর্টে রিটের কারণে তদন্ত স্থগিত ছিল। রিট আবেদনটি খারিজ হওয়ার পর আবার তদন্ত শুরু হয়েছে’।

তিনি আরও বলেন, ‘ব্যক্তি নয়, দুর্নীতির গুরুত্ব বিবেচনা করে দুদক তদন্ত করে থাকে।’

এর আগে সকাল ১০টা থেকে প্রায় চার ঘণ্টা আতিউর রহমান আতিককে  দুদক কার্যালয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। হুইপ আতিকের বিরুদ্ধে অভিযোগের বিবরণীতে বলা হয়েছে, বিলাসবহুল বাড়ি ক্রয়, গ্রামের বাড়ি কামারিয়ায় ৩০ একরের বাগানবাড়ি, ঢাকার বসুন্ধরা ও বনশ্রীতে দুইটি প্লট, ধানমন্ডি ও গুলশানে দুটি ফ্ল্যাট, নামে-বেনামে শতকোটি টাকার সম্পদ অর্জন, নিয়োগ বাণিজ্য, টিআর, কাবিখা ও স্কুল-কলেজের এমপিও থেকে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেওয়াসহ তার বিরুদ্ধে বিভিন্ন দুর্নীতির অভিযোগ রয়েছে।

আরও পড়ুন-  দুর্নীতির অভিযোগে হুইপ আতিককে দুদকে জিজ্ঞাসাবাদ

/আরজে/এসএসএ/টিএন/

x