রেলওয়ের ভুলে বিদ্যুৎহীন শাহজালাল বিমানবন্দর

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট ১৩:১৩ , জুলাই ২১ , ২০১৯

গরমে অতিষ্ঠ বিমানবন্দরের যাত্রীরা

রেলওয়ে বিমানবন্দর এলাকায় উচ্ছেদ অভিযানের সময় কাটা পড়ে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের বিদ্যুৎ সংযোগ। ফলে রবিবার (২১ জুলাই) সকাল ৮টা ২৩ মিনিট থেকে বিদ্যুৎ না থাকায় স্থবির হয়ে পড়ে বিমানবন্দরের  কার্যক্রম। বিকল্প ব্যবস্থায় সচল রাখা হয়েছে বিমানবন্দরের ১ নম্বর টার্মিনাল ভবনের কার্যক্রম। তবে টার্মিনাল-২ ও অভ্যন্তরীণ টার্মিনালে নেই বিদ্যুৎ। বিমানবন্দর সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। 

জানা যায়,  জেনারেটর ও পাওয়ার ব্যাকআপ দিয়ে সীমিত আকারে বিমানবন্দরে জ্বলছে লাইট। তবে কম্পিউটার সচল না থাকায় হাতে লিখে বোর্ডিং কার্ড ইস্যু করছে এয়ারলাইনসগুলো। এসি সচল না থাকায় গরমে দুর্ভোগে পড়েছেন যাত্রীরা। পানি না থাকায় টয়লেটগুলো ব্যবহারের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে।

বেবিচকের প্রধান প্রকৌশলী সুধেন্দু বিকাশ গোস্বামী বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘রেলওয়ে বিমানবন্দরের কাছেই উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করছে। তাদের এ অভিযান চালানোর সময় বিমানবন্দরের বিদ্যুৎ সংযোগ কাটা পড়েছে। আমরা পিডিবির সঙ্গে দ্রুত যোগাযোগ করে সংযোগ সচলের কাজ করছি। আশা করছি ১-২ ঘণ্টার মধ্যে সংযোগ স্থাপন সম্ভব হবে। বিকল্প ব্যবস্থায় টার্মিনাল-১ এ বিদ্যুৎ সংযোগ দেওয়া হয়েছে।’ 

অভ্যন্তরীণ বিমানবন্দরে বিদ্যুৎ না থাকার বিষয়ে ঢাকা বিদ্যুৎ সরবরাহ কোম্পানির (ডেসকো) ব্যবস্থাপনা পরিচালক শাহিদ সারোয়ার বলেন,  ‘এখন মেরামতের কাজ চলছে। কত সময় লাগবে তা এখনই বলা সম্ভব না। আমাদের দু’টি সোর্স থেকে চারটি লাইনের মাধ্যমে সেখানে বিদ্যুৎ সরবরাহ করে থাকি। বর্তমানে একটি লাইন চালু আছে।’

এদিকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বেবিচক জানিয়েছে, অনিবার্য কারণবশতঃ ভোররাত থেকে  হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পানি ও বিদ্যুৎ সরবরাহে সমস্যা দেখা দিলে সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষের প্রচেষ্টায় ডেসা  এবং ওয়াসা’র আন্তরিক সহযোগিতায় খুব দ্রুত সমস্যার সমাধান করা হয়। সিভিল এভিয়েশন কর্তৃপক্ষ নিজস্ব বিকল্প ব্যবস্থায় পানি ও বিদ্যুৎ সরবরাহ অব্যাহত রেখে শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ফ্লাইট পরিচালনাসহ সব ধরনের অপারেশনাল কার্যক্রম পরিচলনা করেছে।

 

/সিএ/এসএনএস/এএইচ/এসটি/এমএমজে/

x