জামালপুরের ডিসি প্রত্যাহার হচ্ছেন, নতুন ডিসি আজই

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট ০০:২১ , আগস্ট ২৫ , ২০১৯

জামালপুরের জেলা প্রশাসক আহমেদ কবীর

নারী অফিস সহায়কের সঙ্গে জামালপুর জেলা প্রশাসক (ডিসি) আহমেদ কবীরের ভিডিওর ঘটনাটি তদন্ত করে দেখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। তবে প্রাথমিক সত্যতা মেলায় তাকে প্রত্যাহার করে ওএসডি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। আজ রবিবার (২৫ আগস্ট) এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। একইসঙ্গে এ জেলায় নতুন জেলা প্রশাসকের নামও ঘোষণা করা হবে।

জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন শনিবার রাতে বাংলা ট্রিবিউনকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেছেন, ‘অবশ্যই বিষয়টি আমরা তদন্ত করবো। তার আগে আগামীকাল (রবিবার) তাকে ওএসডি করা হবে এবং জামালপুরে নতুন ডিসি নিয়োগ দেওয়া হবে।’

এর আগে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলমের বরাত দিয়ে ইউএনবি জানায়, ভিডিওর বিষয়টি সঠিক কিনা তা তদন্ত করছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ। ‘বিষয়টি আমরা দেখছি,’ জানিয়ে বার্তা সংস্থাটিকে তিনি বলেন, ‘দু-এক দিনের মধ্যে এটি সমাধান হবে।’

অতিরিক্ত সচিব গাফফার খানও ইউএনবিকে জানান, তারা প্রাথমিক তদন্ত শুরু করেছেন এবং ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি পরীক্ষা করে দেখছেন।

‘বিভিন্ন সংস্থা ঘটনাটি তদন্ত করছে। আগামীকাল (রবিবার) একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হবে,’ বলেন গাফফার খান।

প্রসঙ্গত জামালপুরের জেলা প্রশাসক আহমেদ কবীরের একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম এবং ফেসবুকের মেসেঞ্জারে ছড়িয়ে পড়ে। বৃহস্পতিবার (২২ আগস্ট) দিবাগত রাতে একটি ফেসবুক আইডি থেকে ভিডিওটি পোস্ট করা হয়। ভিডিওটিতে জেলা প্রশাসকের সঙ্গে তার অফিসের এক নারী অফিস সহায়ককে দেখা গেছে। এ ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে সমালোচনার ঝড় ওঠে। তবে, ভিডিওটি সাজানো দাবি করেছেন জেলা প্রশাসক আহমেদ কবীর।

আরও পড়ুন: 

জামালপুরের ডিসির ভিডিও বিতর্ক

ভিডিও বিতর্ক, জামালপুরের ডিসিকে প্রত্যাহার ও শাস্তির দাবি

 

 

/এসআই/ইউআই/টিএন/এমএমজে/

x