পুলিশের লাঠিচার্জে ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি আহত

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট ১৮:৪৭ , অক্টোবর ১৮ , ২০১৬

ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে লেখা খোলা চিঠি ঢাকার ভারতীয় হাইকমিশনে পৌঁছে দেওয়াকে কেন্দ্র করে পুলিশের লাঠিপেটায় গুরুতর আহত হয়েছেন ছাত্র ফেডারেশনের কেন্দ্রীয় সভাপতি সৈকত মল্লিক। মঙ্গলবার দুপুরে মালিবাগে তেল-গ্যাস, খনিজ সম্পদ ও বিদ্যুৎ-বন্দর রক্ষা জাতীয় কমিটির কর্মসূচিতে এ ঘটনা ঘটে।

আহত সৈকত মল্লিক ও উম্মে হাবিবা বেনজির (বামে)জাতীয় কমিটির নেতা ফিরোজ আহমেদ জানান, বাগেরহাটের রামপালে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র প্রকল্প বাতিলের দাবিতে এ কর্মসূচি পালন করে কমিটি। পুলিশের টিয়ার গ্যাস, জলকামান ও ধাওয়া এবং লাঠিপেটায় অন্তত ১৭ জন আহত হয়েছেন। সৈকত মল্লিকের পায়ে আঘাত লেগেছে। এর আগেও জাতীয় কমিটির কর্মসূচিতে পুলিশের হামলায় তার বাম পা ভেঙে গিয়েছিল।

সৈকত মল্লিক বলেন, ‘হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছি। চিকিৎসকরা রেস্টে থাকতে বলেছেন। আর খুব দ্রুত বাম পায়ে স্ক্রু লাগাতে হবে।’

গণসংহতি আন্দোলনের কেন্দ্রীয় পরিচালনা কমিটির সদস্য ফিরোজ আহমেদ আরও জানান, ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র ফেডারেশনের সভাপতি উম্মে হাবিবা বেনজিরও পুলিশের লাঠিচার্জে গুরুতর আহত হয়েছেন।’
এদিকে, মঙ্গলবার বিকাল তিনটার দিকে জাতীয় কমিটির একটি প্রতিনিধি দল গুলশানে ভারতীয় হাইকমিশনে মোদীর কাছে লেখা চিঠি দিয়ে পৌঁছে দেয়। কমিটির নেতা ফিরোজ আহমেদ জানান, জাতীয় কমিটির নেতা বি ডি রহমতুল্লাহ, তানজিম উদ্দিন খান, রেহনুমা আহমেদ, মোশাহিদা সুলতানা, কফিল আহমেদ ও কল্লোল মোস্তফা প্রতিনিধি ছিলেন। বি ডি রহমতুল্লাহ হাইকমিশনে এক কর্মকর্তার কাছে চিঠিটি পৌঁছে দেন বলে জানান ফিরোজ আহমেদ।

মঙ্গলবারের মিছিলে পুলিশের বাধার প্রতিবাদে মালিবাগে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে আগামী ২০ অক্টোবর ঢাকাসহ সারা দেশে বিক্ষোভ কর্মসূচি ঘোষণা করেছে জাতীয় কমিটি। ওইদিন ঢাকায় জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিকেল চারটায় কর্মসূচি পালিত হবে।

/এসটিএস/এমও/

x