ঢাবিতে ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতি: ১২ শিক্ষার্থীকে পনের দিনের জেল

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট ১৬:৫৪ , অক্টোবর ১৩ , ২০১৭

কারাদণ্ডঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ক’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে রাজধানীর বিভিন্ন কেন্দ্র থেকে ১২ জন শিক্ষার্থীকে আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত সবাইকেই ১৫ দিনের কারাদণ্ড দিয়েছে। শুক্রবার সকাল ১০টা ‘ক’ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়ে শেষ হয় বেলা সাড়ে ১১টায়।
পরীক্ষায় জালিয়াতির অভিযোগে যে ১২ জনকে আটক করা হয়েছে তাদের মধ্যে ২ জনকে আটক করা হয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিজনেস ফ্যাকাল্টি থেকে, ৪ জনকে বোরহানউদ্দিন পোস্ট গ্র্যাজুয়েট কলেজ কেন্দ্র থেকে, একজনকে লালমাটিয়া মহিলা কলেজ কেন্দ্র থেকে। এছাড়া বাকি ৫ জনকে কোন কোন কেন্দ্র থেকে আটক করা হয়েছে তা জানা যায়নি।
বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর আমজাদ হোসেন বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘এই ১২ জন পরীক্ষার্থীর কানে ও শরীরের বিভিন্ন স্থানে ইলেক্ট্রিক ডিভাইস লাগানো ছিল। পরে আমরা তা শনাক্ত করে ভ্রাম্যমাণ আদালতে সোপর্দ করি।’
যারা কেন্দ্রের বাইরে থেকে ডিভাইসগুলো সরবরাহ করেছেন এবং উত্তর বলে দিয়েছে তাদের কাউকে ধরতে পেরেছেন কিনা প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, ‘ধরা পড়া শিক্ষার্থীরা মূল হোতাদের নাম-ঠিকানা ঠিক করে বলতে পারছে না। ফলে তাদের ধরা সম্ভব হয়নি।’

Advertisement

Advertisement

Pran-RFL ad on bangla Tribune x