বীরাঙ্গনাদের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি দাবি

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট ০০:৫১ , ডিসেম্বর ০৭ , ২০১৮





বীরাঙ্গনা
নোবেলজয়ী ড. মুকওয়েগে ফাউন্ডেশনের আমন্ত্রণে বাংলাদেশের দুই বীরাঙ্গনা গিয়েছিলেন নেদারল্যান্ডসে। লন্ডনভিত্তিক নারীবাদী সাংস্কৃতিক দল কমলা কালেক্টিভ, নারীপক্ষ এবং মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের সহায়তায় বাংলাদেশের দুই বীরাঙ্গনা জাবেদা খাতুন ও আনোয়ারা বেগম সেখানে একটি উচ্চপর্যায়ের সম্মেলনে যোগ দেন। সেখানে তারা বীরাঙ্গনাদের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির দাবি জানান।
দেশের বাইরে এটাই ছিল জাবেদা খাতুন ও আনোয়ারা বেগমের প্রথম সফর।

বীরাঙ্গনা ১
কমলা কালেক্টিভ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, বাংলাদেশের এই দুই বীরাঙ্গনার সঙ্গে যোগ দিয়েছিলেন বিশ্বের ১৫টি দেশের আরও অন্তত ২৫ জন যুদ্ধকালীন যৌন নিপীড়নের শিকার নারী। নেদারল্যান্ডসের হেগে আয়োজিত এই সম্মেলনে জাতিসংঘ এবং আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে জাবেদা খাতুন ও আনোয়ারা বেগম স্বীকৃতি দাবি করেছেন। এছাড়াও তারা নিপীড়িতদের জন্য একটি ক্ষতিপূরণ নীতি রাখারও আহ্বান জানান।
সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, উচ্চপর্যায়ের এই সম্মেলনে বিভিন্ন দেশ থেকে আগত যুদ্ধকালীন নিপীড়িত নারীরা একটি বিষয়ে জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। তারা বলেন, তারা নিজ নিজ দেশে স্বীকৃতি পেয়েছেন। আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি লাভে আপনাদের কী করণীয়, তা তারা জানতে চান।
কমলা কালেক্টিভের সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আরও জানানো হয়, এসময় প্রতিষ্ঠানটির কো ফাউন্ডার লিসা গাজীর নির্মিত তথ্যচিত্র ‘রাইজিং সাইলেন্স’ সম্মেলনে আগত নিপীড়িত নারীদের জন্য প্রদর্শিত হয়। আগামী জানুয়ারিতে বাংলাদেশের ঢাকা ফিল্ম ফেস্টিভ্যালেও এটি প্রদর্শিত হবে।

/এসও/এইচআই/

x