ক্ষতিগ্রস্ত পাহাড়ি অঞ্চলকে দুর্গত এলাকা ঘোষণার দাবি বিএনপির

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট ২১:২৪ , জুন ১৯ , ২০১৭

বিএনপিপার্বত্য চট্টগ্রামসহ পাহাড়ি ধসে ক্ষতিগ্রস্ত এলাকাকে ‘দূর্গত এলাকা’ ঘোষণার দাবি জানিয়েছে বিএনপি। একইসঙ্গে নিহতদের স্মরণে রাষ্ট্রীয় শোক পালনের দাবিও করেছে দলটি। সোমবার (১৯ জুন) গুলশানের ইমানুয়েলস কনভেনশন সেন্টারে জাসাস আয়োজিত এক ইফতার অনুষ্ঠানে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এই দাবি জানান।
অনুষ্ঠানে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমরা যখন এখানে ইফতার করছি, তখন অনেক দূরে দেশের পাহাড়ি অঞ্চলে আমাদের ভাই-বোনেরা খুব কষ্টে আছেন। তাদের ঘর-বাড়ি ভেঙে পড়ছে, আত্মীয়-স্বজনরা মারা গেছেন। ভূমিধসে ১৭০ এর মতো মানুষ মারা গেছেন। তারপরও দুঃখজনকভাবে সরকার রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করেনি। এখনও ওই অঞ্চলটিকে উপদ্রুত এলাকা ঘোষণা করেনি।’

উল্লেখ্য, ইতোমধ্যে প্রগতিশীল রাজনৈতিক দল গণসংহতি আন্দোলন রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করার দাবি জানিয়েছে সরকারের কাছে।

ইফতার অনুষ্ঠানে মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আজকের এই মাহফিল থেকে আমরা দাবি জানাচ্ছি, অবিলম্বে পার্বত্য চট্টগ্রামে এলাকা ও চট্টগ্রামের যেসব অঞ্চলে ভূমিধস হয়েছে,সেসব এলাকাকে দূর্গত এলাকা ঘোষণা করা হোক এবং রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করা হোক।’

আওয়ামী লীগের সমালোচনা করে ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘বাংলাদেশের রাজনৈতিক সংস্কৃতি এমন একটা জায়গায় চলে গেছে, সেখানে দেশের মৌলিকত্ব চলে যাওয়ার উপক্রম হয়েছে।’

গণতন্ত্রহীন দেশে প্রকৃত সংস্কৃতি চর্চা হয় না উল্লেখ করে মির্জা ফরকরুল বলেন, ‘গণতন্ত্রহীন ও অধিকারহীন অবস্থার মধ্যে দেশ চলছে। আমাদের প্রত্যাশা থাকবে জাসাস এই সংস্কৃতিকে ধারণ করে তারা সত্যিকার অর্থেই দেশের মানুষের প্রকৃতি, কৃষ্টি ও সংস্কৃতি চর্চা করবেন। দেশের মানুষের মাঝে তা ছড়িয়ে দেবেন।’

ইফতারে জাসাস সভাপতি অধ্যাপক মামুন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক হেলাল খান, বিএনপি চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা কাউন্সিলের সদস্য গাজী মাজহারুল আনোয়ার, আবদুস সালাম, তাহমিনা রুশদীর লুনা, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, জাসাস সহ-সভাপতি ও বিএনপির চেয়ারপারসনের মিডিয়া উইং কর্মকর্তা শায়রুল কবীর খানসহ জাসাসের কেন্দ্রীয় কমিটির নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

/এসটিএস/এম/এসএমএ/

x