চট্টগ্রাম থেকে হেঁটে আসা ৬ কর্মীকে ফখরুলের শুভেচ্ছা

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট ২০:০৫ , জুলাই ১১ , ২০১৮

 



বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে চট্টগ্রাম থেকে হেঁটে আসা নেতাকর্মীরাবিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে চট্টগ্রাম থেকে পায়ে হেঁটে ঢাকায় আসা ছাত্রদল ও যুবদলের ছয় নেতাকর্মীকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।গত ৫ জুলাই চট্টগ্রাম মহানগর বিএনপির কার্যালয় নাসিমন ভবনের সামনে থেকে তারা পদযাত্রা শুরু করেন।

বুধবার দুপুর ২ টায় তারা ঢাকায় পৌঁছেন। এরপর তারা বিএনপির নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে গেলে তাদের ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আতাউর রহমান ঢালী, চেয়ারপারসনের প্রেস উইং কর্মকর্তা শামসুদ্দিন দিদার। পদযাত্রায় অংশগ্রহণকারীরা হলেন– চট্টগ্রাম মহানগর যুবদলকর্মী শফিউল আলম রানা, ছাত্রদলকর্মী শহীদুজ্জামান, আজিম উদ্দিন, সোহেল, কুমিল্লা ছাত্রদল নেতা সাদ্দাম মজুমদার, মনোহরগঞ্জ ছাত্রদল নেতা সোহেল রানা।
পদযাত্রায় অংশগ্রহণকারী শহীদুজ্জামান বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘আমরা খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে চট্টগ্রাম থেকে পায়ে হেঁটে দুপুর ২টায় ঢাকায় এসেছি। এরপর নয়াপল্টন কার্যালয়ে মির্জা ফখরুলের সঙ্গে দেখা করেছি। তিনি আমাদের স্বাগত জানিয়েছেন এবং ভবিষ্যতে এ ধরনের ব্যতিক্রমধর্মী উদ্যোগ নিতে বলেছেন।’ শহীদুজ্জামান আরও জানান, প্রথমে তারা চারজন চট্টগ্রাম থেকে পদযাত্রা শুরু করেন। পরে আরও দু’জন তাদের সঙ্গে যুক্ত হন।
শামসুদ্দিন দিদার বাংলা ট্রিবিউনকে বলেন, ‘খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে তারা চট্রগ্রাম থেকে ঢাকায় এসেছেন। তাদের এই পদযাত্রাকে আমরা স্বাগতম জানাই। দলের নেতাকর্মী সবাই তাদের এই প্রতিবাদ থেকে উজ্জীবিত হবেন। আশা করি সরকারের শুভ বুদ্ধির উদয় হবে, খালেদা জিয়াকে মুক্তি দেবে।’
আগামীকাল বৃহস্পতিবার সকালে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয় থেকে নাজিম উদ্দিন রোড়ের কেন্দ্রীয় কারাগারে দলটির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করতে যাবেন এই ৬ জন। যদিও খালেদা জিয়ার সঙ্গে তাদের দেখা করার কোনও অনুমতি নেই। শহীদুজ্জামান বলেন, ‘আমাদের আনুষ্ঠানিকভাবে দেখা করার কোনও অনুমতি নেই।’

এদিকে সকালে এক সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল অভিযোগ করেছেন, গত ১১ দিন ধরে খালেদা জিয়ার সঙ্গে তার পরিবারের সদস্য এবং দলের কোনও নেতাকে দেখা করতে দেওয়া হচ্ছে না। 

/এএইচআর/ওআর/

x