খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে যুক্তরাজ্যে ক্যাম্পেইনের উদ্যোগ

বাংলা ট্রিবিউন ডেস্ক ০০:৫২ , জুলাই ১১ , ২০১৯

খালেদা জিয়া

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিকে জোরালো করতে যুক্তরাজ্যে ক্যাম্পেইন শুরুর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। দলটির প্রেস উইং থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ওই বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, লন্ডনে কমনওয়েলথ দেশগুলোর পররাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠক শুরুর আগে ব্রিটিশ আইনজীবী লর্ড কার্লাইলের নেতৃত্বে এই ক্যাম্পেইন শুরুর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের মার্চে খালেদা জিয়ার মামলায় সহযোগিতা করতে ব্রিটিশ আইনজীবী লর্ড কার্লাইলকে পরামর্শক হিসেবে নিয়োগ দেয় বিএনপি। 

তার মুক্তির লক্ষ্যে গঠিত ক্যাম্পেইন গ্রুপে কার্লাইল ছাড়াও ক্ষমতাসীন কনজারভেটিভ পার্টির একজন, বিরোধী লেবার পার্টির একজন, একজন লিবারেল ডেমোক্র্যাট এবং লেবার পার্টি অব অস্ট্রেলিয়ার একজন সদস্য রয়েছেন।

লর্ড কারলাইল (ছবি- সংগৃহীত)

বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং থেকে পাঠানো বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, খালেদার মুক্তির দাবিতে সরকারের প্রতি চাপ জোরালো করতেই এই ক্যাম্পেইনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে কার্লাইলকে উদ্ধৃত করে বাংলাদেশের বিচারব্যবস্থার সমালোচনা করা হয়েছে। কার্লাইল দাবি করেছেন, খালেদা অবিচারের শিকার হচ্ছেন। যুক্তরাজ্যসহ আন্তর্জাতিকভাবে তার পক্ষে ক্যাম্পেইনের উদ্যোগ নিচ্ছেন তারা।

উল্লেখ্য, লর্ড কার্লাইলকে এর আগে ২০১৮ সালে খালেদা জিয়ার মামলায় পরামর্শক হিসেবে ঢাকায় আনার চেষ্টা করেছিল বিএনপি। তবে ওই বছরের ১১ জুলাই স্থানীয় সময় রাত ১০টার দিকে তিনি লন্ডন থেকে দিল্লির ইন্দিরা গান্ধী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছালে ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষ তাকে ভারতে প্রবেশের অনুমতি না দিয়ে লন্ডনের ফিরতি ফ্লাইটে উঠিয়ে দেয়।

আরও পড়ুন: 

 

লর্ড কার্লাইলকে দিল্লিতে এনে খালেদা জিয়ার পক্ষে লবিং করাতে চায় বিএনপি

দিল্লি বিমানবন্দর থেকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়েছে লর্ড কার্লাইলকে 

কার্লাইলকে ফেরত দেওয়ায় মর্মাহত বিএনপি

কূটনৈতিক তৎপরতায় কার্লাইলকে দিল্লি থেকে ফেরত পাঠায় সরকার

‘খালেদা জিয়ার মামলা নিয়ে কার্লাইল মন্তব্য করলে আদালতের নজরে আনা হবে’

‘ঢাকা-দিল্লি সম্পর্কে সমস্যা তৈরি করতে চেয়েছিলেন লর্ড কার্লাইল’ 

লর্ড কারলাইল ও তার আইনি প্রতিষ্ঠান এসসি স্ট্র্যাটেজির আদ্যোপান্ত

 

 

 

/এসটিএস/বিএ/টিএন/এমএমজে/

x