শেষরাতেও লোকজন নিয়ে কাকরাইলের যুবলীগ কার্যালয়ে সম্রাট

রাফসান জানি ০৪:১৭ , সেপ্টেম্বর ১৯ , ২০১৯

ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট

নেতাকর্মীদের নিয়ে বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) শেষরাতেও যুবলীগ কার্যালয়ে অবস্থান করেছেন ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট। বুধবার রাতে দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়া অস্ত্রসহ গ্রেফতার হওয়ার পর কাকরাইল কার্যালয়ে উপস্থিত হন বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মীরা। তাদের ধারণা, চলমান অভিযানে গ্রেফতার হতে পারেন ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট। সেজন্য তারা কার্যালয়ে অবস্থান নিয়েছেন। কার্যালয়ে অবস্থান করা একাধিক নেতাকর্মীর সঙ্গে কথা বলে এই তথ্য জানা গেছে। 

রাত ৩টার পরেও কার্যালয়ে নেতাকর্মীদের ভিড়ের কারণ জানতে চাইলে ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাট বলেন, ‘আমার কাছে নেতাকর্মীরা প্রতিদিনই আসে। রাত ১টা-২টা পর্যন্ত থাকে। এটা নতুন কিছু না।’

অন্যদিনের তুলনায় কয়েকগুণ বেশি নেতাকর্মীর উপস্থিতি গ্রেফতার আতঙ্কের কারণে কিনা জানতে চাইলে সম্রাট বলেন, ‘আমি আতঙ্কিত নই। আইনত যদি কোনও সংশ্লিষ্টতা পায়, তাহলে অবশ্যই ব্যবস্থা নিতে পারে।’

রাতে কাকরাইল এলাকায় দায়িত্বরত রমনা থানার এসআই রঞ্জু মিয়া বলেন, ‘রাত ২টার দিকে কার্যালয়ের দুপাশে নেতাকর্মীদের দেখে এসেছি। তবে কোনও বিশৃঙ্খলা ছিল না।’

উল্লেখ্য, দুর্নীতির অভিযোগে ছাত্রলীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে পদত্যাগের নির্দেশ দেওয়ার পর যুবলীগের কিছু নেতার কর্মকাণ্ডে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। (১৪ সেপ্টেম্বর) দলের কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকে অনির্ধারিত আলোচনায় যুবলীগের কয়েকজন নেতার ব্যাপারে ক্ষোভ প্রকাশ করে তিনি বলেন, ‘এরা শোভন-রাব্বানীর চেয়েও খারাপ।’

প্রধানমন্ত্রীর ক্ষোভ প্রকাশের চার দিনের মাথায় রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় চারটি ক্যাসিনোতে অভিযান চালিয়েছে র‍্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)। এ সময় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক খালেদ মাহমুদ ভূঁইয়াকে অস্ত্রসহ গ্রেফতার করা হয়েছে এবং ক্যাসিনোগুলো সিলগালা করা হয়েছে।

অভিযানে মোট ১৮২ জনকে আটকের পর বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছেন র‍্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত। এছাড়া জব্দ করা হয়েছে বিপুল অঙ্কের টাকা, মদ ও বিয়ারসহ জুয়া খেলার বিভিন্ন সরঞ্জাম।

ক্যাসিনোতে অভিযান ও দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদককে গ্রেফতারের পর একই ইউনিটের সভাপতি ইসমাইল হোসেন চৌধুরী সম্রাটও গ্রেফতার হতে পারেন−এমন তথ্য ছড়ায় নেতাকর্মীদের মধ্যে।

আরও পড়ুন: যুবলীগের কিছু নেতার উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী: এরা শোভন-রাব্বানীর চেয়েও খারাপ

/এএইচ/এমএমজে/

x