সেঞ্চুরিয়নে শেষ বিকেলে ঘুরে দাঁড়ালো ভারত

স্পোর্টস ডেস্ক ২১:৫১ , জানুয়ারি ১৩ , ২০১৮

দিনটা শেষ হলো ভারতের উল্লাস দিয়েকোনও উইকেট না হারিয়ে প্রথম সেশন শেষ করা দক্ষিণ আফ্রিকার বিকেলটা ভালো কাটেনি। সেঞ্চুরিয়ন টেস্টের প্রথম দিন শেষ সেশনে তাদের প্রতিরোধ ভেঙে দাপট দেখিয়েছে ভারতের বোলাররা।

অবশ্য এইডেন মারক্রাম ও হাশিম আমলার হাফ সেঞ্চুরিতে দক্ষিণ আফ্রিকার স্কোরবোর্ড বেশ সমৃদ্ধ। ৬ উইকেটে ২৬৯ রানে দিন শেষ করেছে স্বাগতিকরা।

টস জিতে ব্যাট করতে নেমে মারক্রাম ও ডিন এলগার প্রথম সেশন কাটিয়ে দেন একসঙ্গে। লাঞ্চে যাওয়ার আগে কোনও উইকেট না হারিয়ে ৭৮ রান করে স্বাগতিকরা। মারক্রাম ৮১ বলে ৯ চারে দ্বিতীয় হাফ সেঞ্চুরি করেন। প্রোটিয়াদের উদ্বোধনী জুটি ভাঙে ৮৫ রানে। এলগারকে ৩১ রানে ‍মুরালি বিজয়ের ক্যাচ বানান রবিচন্দ্রন অশ্বিন।

সেঞ্চুরি না হওয়ার আক্ষেপে পুড়েছেন মারক্রাহাশিম আমলার সঙ্গে ৬৩ রানের জুটি গড়ার পর ৬ রানের আক্ষেপ নিয়ে মাঠ ছাড়েন মারক্রাম। তার দ্বিতীয় সেঞ্চুরি হাত ফসকে যায় অশ্বিনের বলে পেছনে পার্থিব প্যাটেলকে ক্যাচ দিলে। ১৫০ বলে ৯৪ রান করেন মারক্রাম, চার ছিল ১৫টি। দ্বিতীয় সেশনে কেবল এ দুটি উইকেটই হারায় দক্ষিণ আফ্রিকা।

চা বিরতির পর শুরুতেই এবি ডি ভিলিয়ার্স আউট হন। লম্বা ইনিংস খেলতে পারেননি তিনি, ৪৮ বলে ২০ রানে বোল্ড হন ইশান্ত শর্মার কাছে।

তারপর ফাফ দু প্লেসিস ও আমলার জুটিতে এগোচ্ছিল প্রোটিয়ারা। কিন্তু তাদের অস্বস্তিতে ফেলে ভারত দিন শেষ হওয়ার ঘণ্টাখানেক আগে। ৬ রানের মধ্যে দুটি উইকেট হারায় স্বাগতিকরা, যার দুটিই রান আউট। হার্দিক পান্ডিয়ার দুর্দান্ত থ্রোতে আমলা রান আউট হন, ৮২ রান করেন তিনি। কুইন্টন ডি কক প্রথম বলেই অশ্বিনকে উইকেট দেন কোহলির ক্যাচ হয়ে। দু প্লেসিসের নিষেধ সত্ত্বেও রান নিতে গিয়ে পরের ওভারে আউট হন ভারনন ফিল্যান্ডার।

পান্ডিয়ার চমৎকার থ্রোতে রান আউট আমলাকেশব মহারাজকে নিয়ে দিন শেষ করেছেন দু প্লেসিস। স্বাগতিক এই অধিনায়ক ৭৭ বলে ২৪ রানে অপরাজিত আছেন। ২৩ বল খেলে মহারাজ ১০ রান করেছেন।

ভারতের পক্ষে অশ্বিন ৯০ রান দিয়ে ৩১ ওভারে নেন ৩ উইকেট। ক্রিকইনফো

/এফএইচএম/

x