শিয়েরারের চোখে ‘বর্ষসেরা’ সালাহ

স্পোর্টস ডেস্ক ১৫:৫০ , এপ্রিল ১৭ , ২০১৮

মোহাম্মদ সালাহগোলের পর গোল করে যাচ্ছেন মোহাম্মদ সালাহ। তার দুর্দান্ত পারফরম্যান্সেই লিভারপুল উঠেছে চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালে। ইংলিশ ফুটবলে নতুন তারা হয়ে জ্বলে ওঠা এই ফরোয়ার্ডে মুগ্ধ অ্যালান শিয়েরার। ইংলিশ কিংবদন্তির চোখে তিনিই ‘বর্ষসেরা খেলোয়াড়’।

খেলোয়াড়ি জীবনে শিয়েরারও ছিলেন গোলমেশিন। ব্ল্যাকবার্ন-নিউক্যাসলের হয়ে মাঠ মাতানো এই স্ট্রাইকার মনে মনে প্রফেশনাল ফুটবলার’স অ্যাসোসিয়েশনের (পিএফএ) বর্ষসেরা খেলোয়াড় হিসেবে নির্বাচিত করেছিলেন দুজনকে। সালাহর সঙ্গে অন্যজন ছিলেন কেভিন ডি ব্রুইন। তবে ম্যানচেস্টার সিটি-লিভারপুলের চ্যাম্পিয়নস লিগ কোয়ার্টার ফাইনালের পর সালাহর বাক্সেই ফেলছেন ভোট।

গত সপ্তাহে পিএফএ বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের মনোনয়ন প্রকাশ করেছে। সেখানে সালাহর গোল্ডেন বুট প্রতিদ্বন্দ্বী হ্যারি কেইনের সঙ্গে ডি ব্রুইনও আছেন। বেলজিয়াম মিডফিল্ডার ম্যানসিটির প্রিমিয়ার লিগ শিরোপা জেতার পথে রেখেছেন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। তার অবদান স্বীকারও করছেন শিয়েরার, তবে সালাহর দিকে তাকালে ডি ব্রুইন একটু খাটোই হয়ে যাচ্ছেন সাবেক ইংলিশ স্ট্রাইকারের চোখে।

যদিও গত গ্রীষ্মের দলবদলে যখন সালাহকে রোমা থেকে কিনে আনে লিভারপুল, তখন অনেকেই বাঁকা চোখে তাকিয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন শিয়েরার। ‘দ্য সান’-এর কলামে তিনি লিখেছেন, ‘গত গ্রীষ্মে যখন লিভারপুল তাকে সই করেছিল, তখন কেউই ভবিষ্যদ্বাণী করতে পারেননি যে তিনি এতটা উত্তাপ ছড়াবেন। দুই-একজন বরং ভ্রু কুঁচকেছিলেন, যখন ৩৪.৩ মিলিয়ন পাউন্ডে রেডরা তাকে কিনেছিল। এই অঙ্কটা তখন বেশি মনে হয়েছিল চেলসিতে কাটানো তার সময়ের দিকে তাকিয়ে।’

সেই সালাহকেই এখন সেরা মানছেন শিয়েরার, ‘সেই তিনিই এখন আমার ভোট পাচ্ছেন বর্ষসেরা খেলোয়াড়ের। বলেছিলাম, লিভারপুল-ম্যানসিটির চ্যাম্পিয়নস লিগ ম্যাচের পর ঠিক করব সালাহ নাকি কেভিন ডি ব্রুইনকে পুরস্কারটি জন্য এগিয়ে রাখব।’ কোয়ার্টার ফাইনালের দুই লেগে সালাহ নিজেকে প্রমাণ করায় তার বাক্সেই ভোট দিচ্ছেন ইংল্যান্ডের জার্সিতে ৬৩ ম্যাচে ৩০ গোল করা এই স্ট্রাইকার, ‘সালাহ দুই লেগেই গোল করেছেন এবং তার দলকে তুলে নিয়েছেন সেমিফাইনালে। তাই এখন আমি তাকেই বেছে নিলাম।’ গোল ডটকম

/কেআর/

x