ফাইনালে ফ্রান্সকে এগিয়ে রাখছেন মানিক

বাংলা ট্রিবিউন রিপোর্ট ১৭:৫৩ , জুলাই ১২ , ২০১৮

শফিকুল ইসলাম মানিক। ছবি: সাজ্জাদ হোসেনশেষ দিকে চলে এসেছে বিশ্বকাপ। ফ্রান্স নাকি ক্রোয়েশিয়া- কোন দল ১৫ জুলাই ট্রফি উঁচিয়ে উল্লাস করবে, সেটাই এখন দেখার অপেক্ষায় গোটা বিশ্ব। বাংলাদেশ জাতীয় দলের সাবেক কোচ শফিকুল ইসলাম মানিক কিন্তু এগিয়ে রাখছেন ফ্রান্সকে।

কিয়েরন ট্রিপিয়ারের সেট পিস থেকে লক্ষ্যভেদে ইংল্যান্ড এগিয়ে যায়। যদিও লিডটা ধরে রাখতে পারেনি ইংলিশরা। বিশ্বকাপে সেট পিস থেকে অন্যতম সেরা গোল পেয়েও ইংল্যান্ড বাদ পড়েছে। এতে ১৯৬৬ সালের চ্যাম্পিয়নদের দায় দেখছেন মানিক। বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি বললেন, “একাধিক সেট পিস থেকে গোল হলেও এ্টা ছিল অন্যতম সেরা গোল। আরও দুই-তিনটি গোলের সুযোগ ছিল, কিন্তু তা কাজে লাগাতে পারেনি হ্যারি কেইন-জেসি লিনগার্ডরা। তাদের শারিরীক ভাষা বলছিল, ‘আমরা তো গোল পাবো।’ সেটা কাজ করেছে প্রথমার্ধ পর্যন্ত।”

সঙ্গে যোগ করলেন, ‘এরপর তারা আর পারেনি। ক্রোয়েশিয়া নতুন কৌশলে খেলে ঘুরে দাঁড়িয়েছে। প্রথমার্ধে রাকিতিচ-মানজুকিচরা ভালো খেলেনি, বিরতরি পর ঘুরে দাঁড়িয়ে ১-১ সমতায় ফিরিয়েছে ম্যাচ। তারপর অতিরিক্ত সময়ে ম্যাচ গড়িয়েছে, সেখানে তাদের পারফরম্যান্স ছিল দেখার মতো।’

তবে মানজুকিচের গোল নিয়ে আপত্তি আছে এই কোচের, ‘গোলটির আগে মনে হয় ফাউল হয়েছে। ভিডিও প্রযুক্তি ব্যবহার করা উচিত ছিল। রেফারির পারফরম্যান্স ভালো হয়নি। সে ব্যালেন্সড করার চেষ্টা করেছে। এছাড়া এক পর্যায়ে ইংল্যান্ড অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসী হয়ে পড়ে। মাঠে তাদের পরিপক্ক মনে হয়নি।’

বুধবার রাতে অতিরিক্ত সময়ে গড়ানো সেমিফাইনালে ক্রোয়েশিয়া ২-১ গোলে হারিয়েছে ইংল্যান্ডকে। মারিও মানজুকিচের ১০৯ মিনিটে গোলে প্রথমবারের মতো বিশ্বকাপের ফাইনালে ওঠার আনন্দে মাতে ক্রোয়েটরা। এখন শিরোপা জেতার লক্ষ্যে রবিবার ফাইনালে মুখোমুখি হবে ফ্রান্সের। রাশিয়া বিশ্বকাপে ফাইনালে ফরাসিদেরই এগিয়ে রাখলেন মানিক, ‘ফ্রান্স ফিটনেস ও বিশ্রাম মিলিয়ে এগিয়ে আছে। ক্রোয়েশিয়া এই জায়গাটাতে পিছিয়ে আছে।’

প্রথম সেমিফাইনালে বেলজিয়ামকে ১-০ গোলে হারিয়ে তৃতীয়বারের মতো ফাইনালে ওঠে ফ্রান্স। ওই ম্যাচ নিয়েও বাংলা ট্রিবিউনের সঙ্গে কথা বলেছেন মানিক।

ফ্রান্স-বেলজিয়ামের সেমিফাইনাল নিয়ে জাতীয় দলের সাবেক কোচের বক্তব্য, ‘ফ্রান্স তিনটি লাতিন দলকে হারিয়ে এসেছে সেমিফাইনালে। এর মধ্যে উরুগুয়ে কিছুটা সহজ প্রতিপক্ষ ছিল (এদিনসন) কাভানি না থাকায়। কাভানি থাকলে ম্যাচটি কঠিন ছিল। বেলজিয়ামের কিছু ভুলের কারণে তাদের পক্ষে ম্যাচ জেতা অনেকটা সহজ হয়ে যায়। গোলো কঁতে, পল পগবা, আন্তোয়ান গ্রিয়েজমান, কাইলিয়ান এমবাপে কার্যকর ভূমিকা পালন করেছে।’

বেলজিয়ামের হার নিয়ে মানিক বললেন, ‘বেলজিয়াম গ্রুপ পর্যায়ে কিছুটা সহজ ম্যাচ খেলেছে। নকআউট পর্বে জাপানের বিপক্ষে কঠিন ম্যাচ ছিল। তাদের জন্য জাপানের বিপক্ষে পিছিয়ে থেকে ৩ গোল করা প্রথম অভিজ্ঞতা। আবার ব্রাজিলের বিপক্ষে ২ গোল করে ম্যাচ ধরে রাখা আরেকটি অভিজ্ঞতা ছিল। সেমিফাইনালে ভাবা হয়েছিল এগিয়ে থাকবে বেলজিয়াম, কিন্তু মাঠের খেলাতে এগিয়ে থেকেও জেতা হয়নি তাদের।’

/টিএ/কেআর/

x