‘বাংলাদেশকে র‌্যাংকিংয়ের ছয়ে নিয়ে যেতে চাই’

রবিউল ইসলাম ২৩:৪৮ , নভেম্বর ০৯ , ২০১৮

রুমানা আহমেদএশিয়া কাপ জয়ে আত্মবিশ্বাসের পারদ আকাশ ছোঁয়া। বাংলাদেশের মেয়েদের ক্রিকেট দল টি-টোয়েন্টির বিশ্ব আসরেও দেখছে অনেক দূর যাওয়ার স্বপ্ন, যার শুরুটা হচ্ছে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে। আজ (শুক্রবার) শুরু হওয়া ক্যারিবিয়ান অঞ্চলে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে বাংলাদেশের প্রস্তুতি কেমন, লক্ষ্য কী, ব্যক্তিগত স্বপ্নই বা কী- এই নিয়ে বাংলা ট্রিবিউনের মুখোমুখি হয়েছিলেন অলরাউন্ডার ও ওয়ানডে অধিনায়ক রুমানা আহমেদ।

বাংলা ট্রিবিউন: ২০১৬ সালের ব্যর্থতা ভুলে এই আসরের ভাবনা কী?

রুমানা আহমেদ: এই আসরে আমাদের কঠিন কন্ডিশনে খেলতে হলেও আমরা আগের চেয়ে ভালো করতে আত্মবিশ্বাসী। কেননা গত দুই বছরে আমরা অনেক বেশি ম্যাচ খেলেছি। ভারতের মতো দলের বিপক্ষে আমাদের সাফল্য আছে। সব মিলিয়ে আমি আশা করি ২০১৬ বিশ্বকাপের চেয়ে আমরা মানসিকভাবে ভালো অবস্থানে থেকে টুর্নামেন্ট শুরু করতে পারব। দলের প্রত্যেকের মধ্যেই আত্মবিশ্বাস আছে, ভালো করার ব্যাপারে।

প্রশ্ন: বিশ্বকাপ স্কোয়াডে বেশ কিছু পরিবর্তন এসেছে। তাতে দল কতটা ভারমাস্যপূর্ণ?

রুমানা: আমরা একসঙ্গে অনেকদিন ধরেই খেলছি। স্কোয়াডে কয়েকজন পুরনো ক্রিকেটার আবার সুযোগ পেয়েছে। যাদের পরিবর্তে ঢুকেছে তারা ম্যাচ খেলার সুযোগ পাচ্ছিল না। তবে এখন যারা সুযোগ পেয়েছে তাদের অনেকেই জাতীয় দলে খেলে গেছে, তাদের ম্যাচে খেলানোর চিন্তা-ভাবনাও আছে। সব মিলিয়ে আমার মনে হয় দলটা এখন অনেক ব্যালেন্স হয়েছে। এই দলটার বিশ্বকাপে ভালো করার সম্ভাবনা আছে।

প্রশ্ন: সেই ভালোটা আসলে কী?

রুমানা: আমরা ম্যাচ বাই ম্যাচ চিন্তা করছি। আমাদের দলকে (র‌্যাংকিংয়ের) ছয় কিংবা সাত নম্বরে নিয়ে যেতে চাই। এখন নয় নম্বরে আছি, তিন ধাপ এগিয়ে যেতে চাই। বিশ্বকাপে আমরা সেই লক্ষ্য নিয়েই খেলতে নামব। বড় মঞ্চে সবাই চায় নিজেকে উজাড় করে দিতে। কেননা ওখানে সবার ফোকাস থাকে। আমরা সবাই ভালো খেলতে মুখিয়ে আছি।

প্রশ্ন: ব্যাটিং-বোলিং দুই বিভাগেই আপনাকে দায়িত্ব পালন করতে হবে। নিজের ব্যাপারে কতটা আত্মবিশ্বাসী?

রুমানা: গত কিছুদিন ধরে নিজের ভুলগুলো নিয়ে কাজ করেছি। অনেক পরিশ্রম করছি। বোলিং মেশিনের সাহায্যে ব্যাটিং করেছি। মাঠে বেশি সময় অনুশীলন করেছি। যেহেতু আমাকে দুটি দায়িত্ব একসঙ্গে পালন করতে হবে, আমি সেভাবেই প্রস্তুতি নিয়েছি। অবশ্যই চেষ্টা থাকবে দলকে আরও বেশি দেওয়ার। দুই বিভাগে সর্বোচ্চ দেওয়ার চেষ্টা করব।

প্রশ্ন: ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজ দল সম্পর্কে তেমন একটা ধারণা নেই আপনাদের। তাদের নিয়ে ঠিক কী পরিকল্পনা?

রুমানা: ভারত সম্পর্কেও আমাদের তেমন ধারণা ছিল না। কারণ তাদের বিপক্ষে আমরা খেলার সুযোগ পাই না। এশিয়া কাপে ভালো করার কারণ হচ্ছে ভিডিও অ্যানালিস্ট। তার কাছ থেকে ভারতের ব্যাটসম্যানদের ফুটেজ দেখে আমরা বোলিংয়ের পরিকল্পনা করেছিলাম। সব মিলিয়ে সফল হয়েছি। বিশ্বকাপের আগেও এভাবেই আমরা পরিকলাপনা করেছি। যেহেতু ইংল্যান্ড-ওয়েস্ট ইন্ডিজের খেলোয়াড়দের সম্পর্কে তেমন ধারণা নেই, তাই তাদের ভিডিও ফুটেজ দেখেই ধারণা নিচ্ছি।

প্রশ্ন: ওয়েস্ট ইন্ডিজের কঠিন কন্ডিশন নিয়ে আপনার ভাবনা?

রুমানা: কন্ডিশন নিয়ে আমরা তেমন কিছু ভাবছি না। এখানে এসে আমরা দুই সপ্তাহ অনুশীলন করেছি। কন্ডিশনের সঙ্গে নিজেদের মানিয়ে নিতে পেরেছি। আশা করি এই টুর্নামেন্টে নিজেদের সেরাটা দিয়ে খেলতে পারব। বিশ্বকাপে আমরা ভালো করি না বলে বদনাম আছে, আশা করি এই বদনাম এবার আমরা ঘুচাতে পারব। পাকিস্তানের সঙ্গে হেরেছি বলে অনেকেই অনেক কথা বলছেন, আমরা বড় দলগুলোর সঙ্গে লড়াই করতে পারব না। সত্যি কথা বলতে আমরা এগুলো নিয়ে ভাবছি না। আমরা সামনের দিকে তাকিয়ে আছি।

/আরআই/কেআর/

x